লর্ডসে সব কিছুই ঠিকঠাক চলছিল মিতালি রাজদের। কিন্তু হঠাৎ এক দূর্ঘটনায় ভারতীয় শিবিরে সাময়িক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে শনিবার বিকেলে। নেটে ব্যাট করতে গিয়ে কাঁধে চোট পান হরমনপ্রীত কৌর। যাঁর ব্যাটের ঝড়ে সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে হারায় ভারত, সেই হরমনপ্রীতের চোটে কিছুটা হলেও দুশ্চিন্তায় পড়েছিলেন মিতালিরা।

চোটটা গুরুতর কি না, তা নিয়ে ভারতীয় শিবির থেকে অবশ্য তখন কিছুই জানানো হয়নি। তবে এ দিন নেটে ডান কাঁধে চোট লাগার পর হরমনপ্রীতকে দেখে মনে হয়, তিনি বেশ ঘাবড়ে গিয়েছেন। ফিজিওকে তাঁর কাঁধে বরফ ঘষতেও দেখা যায়। তার পরে আর নেটে ফিরে যেতে পারেননি পঞ্জাবের এই আগ্রাসী ব্যাটসম্যান। রাতে ভারত অধিনায়ক মিতালি অবশ্য আশ্বস্ত করেন, চোট নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

শনিবার আবার ভারতীয় দলের নেটে হাজির হন সচিন তেন্ডুলকরের ছেলে অর্জুন। বাঁ হাতি পেসার অর্জুনকে মিতালিদের বিরুদ্ধে বোলিং করতে দেখা যায়। এর আগে তাঁকে ইংল্যান্ডের নেটেও বোলিং করতে দেখা গিয়েছে।

রবিবারের ঐতিহাসিক ম্যাচের আগে লর্ডসের উইকেট দেখে খুশি ভারত অধিনায়ক মিতালি বলেন, ‘‘এই উইকেটে প্রচুর রান উঠবে বলেই মনে হচ্ছে। এই ধরনের উইকেট বরাবরই আমাদের আত্মবিশ্বাস জোগায়।’’ ভারতের মতো ইংল্যান্ডও যেহেতু ব্যাটিং নির্ভর দল, তাই বিশ্বকাপ ফাইনালে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে সম্ভাবনা বেশি।

লর্ডস মিতালির কাছে পয়া মাঠ। ২০১২-য় এখানে ৯৪ রানের এক অপরাজিত ইনিংস খেলেন মিতালি। ২০০৬-এ ৫৯ রান করেন তিনি। লর্ডসের ঢালু মাঠের জন্য বহু তাবড় ব্যাটসম্যান এখানে বেকায়দায় পড়েছেন। তবে তাঁর কখনও অসুবিধা হয়নি বলে সাংবাদিকদের জানান ভারতের অধিনায়ক। বলেন, ‘‘এখানে মাঠে নেমে ঢালের কথাটা আমার কখনও মাথায় থাকেনি। এত ভাবলে ব্যাটিংটাই তো ভুলে যাব। যে ভাবে আমরা এত দূর এসেছি, ফাইনালেও সে রকমই স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলব আমরা।’’ উইকেট দেখার পর ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হেদার নাইটের বক্তব্য, ‘‘উইকেটে হালকা ঘাস রয়েছে। যার জন্য পিচে গতি থাকবে।’’ রবিবার যে উইকেটে ফাইনাল হবে, সেই উইকেটে শেষ ম্যাচ হয়েছিল মে মাসে ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যে। ইংরেজ অধিনায়ক অবশ্য বদলার কথা বলে রাখছেন ম্যাচের আগে। বলেন, ‘‘প্রথম ম্যাচে যে ভারত আমাদের হারিয়েছিল, সেটা মনে আছে আমাদের। কাল মাঠেও সেই হারের কথা মাথা থাকবে আমাদের।’’ 

 

(এই প্রতিবেদনটি প্রথম প্রকাশের সময় ভুলবশত লেখা হয়েছিল- সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ভারত। এই অনিচ্ছাকৃত ত্রুটির জন্য আমরা দুঃখিত)