• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

টানা পাঁচ জয়ের পর থমকে গেল মোহনবাগান

Mohun Bagan
গোল করার পর ক্রোমাকে নিয়ে বাগান ফুটবলাররা।-নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

আটকে গেল মোহনবাগানের বিজয়-রথ। বুধবার ঘরের মাঠে রেনবো এসি-এর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করল শঙ্করলাল চক্রবর্তীর দল।

প্রতি ম্যাচের মতো এ দিনও দলের জয় দেখতে গ্যালারিতে ভিড় জমিয়েছিলেন হাজার হাজার মোহন সমর্থক। মাঠের বাইরে ছিল ফ্যান জোনও।

কিন্তু বাগান সমর্থকরা যে ভাবে ম্যাচের আগে উৎসবের আমেজ এনেছিলেন মোহন তাঁবুতে, সেই আমেজ ধরে রাখতে ব্যর্থ হন কামো-ক্রোমারা। গোটা ম্যাচেই রেনবো ফুটবলারদের দাপটে ত্রাহি ত্রাহি রব ওঠে বাগান রক্ষণে। বাগান ডিফেন্সের ভুলে প্রথমার্ধের ৩০ মিনিটে গোল করে রোনবোকে এগিয়ে দেন সুরজ মাহাতো। সুজয়ের বাঁক খাওয়ানো সেন্টার বাজের ক্ষিপ্রতায় কিংশুকের পাশ দিয়ে জালে জড়িয়ে দেন সুরজ। এর পর বহু চেষ্টা করলেও গোল সংখ্যা বাড়াতে পারেনি রেনবো। প্রথমার্ধের শেষে খেলার ফল ছিল ১-০।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জনকারী ম্যাচে আটকে গেল আর্জেন্তিনা

আরও পড়ুন: তিন বছর পর স্পনসর জুটল বাগানে

তবে, প্রথমার্ধে মোহনবাগানের খেলায় ঝাঁঝ পাওয়া না গেলেও, দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধ করার জন্য শুরু থেকেই ঝাঁপায় মোহনবাগান। দ্বিতীয়ার্ধের ১০ মিনিট মোহনবাগানের একের পর এক আক্রমণে কার্যত নড়ে ওঠে রেনবোর রক্ষণ দুর্গ। এই সময় রেনবোর গোল রক্ষক অঙ্কুর দাসের বিশ্বস্ত হাত রুখে না দাঁড়ালে সেই সময় ৩-৪ গোল হজম করতে হত রেনবো এসিকে। এরই মাঝে দ্বিতীয়ার্ধের ১৫ মিনিটে গোল করে বাগানকে সমতায় ফেরান ক্রোমা। তবে, ওই এক বারই পরাস্থ হয়েছিলেন অঙ্কুর। আর এক বারও অঙ্কুরকে টলিয়ে রেনবোর জালে বল জড়াতে পারেনি মোহনবাগান। ম্যাচ শেষ হয় ১-১ গোলে। এ দিনের ম্যাচের সেরাও নির্বাচিত হন অঙ্কুর দাস।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন