• আর্যভট্ট খান
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উত্তপ্ত ধোনিকে আগেও দেখেছেন ছোটবেলার কোচ

খেলায় মন দে, মণীশকে ধমক মাহির

Dhoni
ক্ষুব্ধ: রান নেওয়ার সময় মণীশের মনোভাবে চটলেন ধোনি। বুধবার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে। ফাইল চিত্র

সব সময় শুধু ‘কুল’ নয়। মাঝে মধ্যে যেন এ রকম রেগে যান মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ধোনির নিজের শহর রাঁচী এখন এমনটাই চাইছে। কারণটা কী? ধোনির ছোটবেলার বন্ধু থেকে শুরু করে রাঁচী শহরে তাঁর ভক্তরা মনে করছেন, রেগে গিয়ে যদি সেই ‘ফিনিশার’ ধোনি ফিরে আসেন, তা হলে মন্দ কী? 

কিছু দিন ধরে ধোনির ‘অফ ফর্ম’ নিয়ে চিন্তিত রাঁচী। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ওয়ান ডে ম্যাচে সে ভাবে রান পাননি তিনি। প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও ব্যাটে রানের খরা ছিল। ধোনির আকাশে যখন কিছুটা কালো মেঘ ঘনিয়ে আসছিল, তখনই তিনি দুরন্ত ব্যাটিং করে ফিরলেন পুরনো মেজাজে। আর সেই ধ্বংসাত্মক ব্যাটিংয়ের পিছনে কি ধোনির রাগ কাজ করছিল? এই প্রশ্নই এখন প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের নিজের শহর রাঁচীতে।

গত কাল ভারতের ব্যাটিংয়ের সময় শেষ ওভারে ধোনির সঙ্গে ব্যাটিং করছিলেন মনীশ পাণ্ডে। শেষ ওভারের প্রথম বলে মনীশ এক রান নিয়ে নন স্ট্রাইকার এন্ডে চলে যান। যেখানে দু’রান হওয়ার একটা সম্ভাবনা ছিল। তখন দেখা যায় ধোনি রেগে গিয়ে মনীশকে কিছু একটা বলছেন। যা বলেছিলেন ধোনি, তা স্টাম্প মাইক্রোফেনে পুরোটাই ধরা পড়েছে। যে ভিডিও টুইটার মারফত ছড়িয়ে পড়ে দেশ জুড়ে। রান নিতে গিয়ে কেন মনঃসংযোগ নষ্ট হচ্ছে, সেই নিয়ে মনীশকে ধমক দেন ধোনি। ভিডিওয় শোনা যায়, ধোনি রেগে গিয়ে বলছেন, ‘‘ও দিকে কী দেখছিস। রান নেওয়ার সময় আমার দিকে তাকা। খেলায় মন দে।’’ এর পরেই দেখা যায় ধোনির রাগ যেন পুরো গিয়ে পড়েছে বলের ওপর। পরের পাঁচটি বলে ধোনি নেন যথাক্রমে ৬, ৪, ৪, ২, ১। শেষ ওভারে ধোনির এই ধামাকা ভারতকে ভাল জায়গায় পৌঁছে দিয়েছিল। ওই ব্যাটিং দেখে রাতেই রাঁচীতে ধোনির ফ্যানদের মধ্যে বার্তা রটে যায়, ‘‘মাহি মার রহে হ্যায়।’’ ‘ফিনিশার’ ধোনি ফিরে এসেছেন। অনেকেই বলতে থাকেন, রেগে গিয়েই ধোনি এ রকম ঝোড়ো ব্যাটিং করলেন।

খেলতে খেলতে এই ভাবে প্রকাশ্যে রেগে যেতে ধোনিকে আগেও দেখেছেন তাঁর ছোটবেলার কোচ কেশব বন্দ্যোপাধ্যায়। কেশববাবু বলেন, ‘‘মাহি আসলে এতটাই ক্রিকেট নিবেদিত প্রাণ যে ওর সহ-খেলোয়াড়দের মধ্যে কেউ যদি অমনোযোগী হয়ে পড়ে, তা হলে ও রেগে যায়। ধোনি চায় সব খেলাতেই জিততে। তাই সহ-খেলোয়াড়ের অমনোযোগী হয়ে পড়াটা ও একদম পছন্দ করে না।’’ অন্য দিকে, ধোনির এক সময়কার সহ-খেলোয়াড় ও সিসিএল টিমের প্রাক্তন অধিনায়ক আদিল হুসেন বলেন, ‘‘ও ম্যাচের সময় সহ-খেলোয়াড়দের কাছ থেকেও একশো শতাংশ মনোযোগ দাবি করে। সেটা না হলেই ওকে অনেকবার রেগে যেতে দেখেছি। গত কাল রাতে ধোনিকে রেগে যেতে দেখে অনেক পুরনো কথা মনে পড়ে গেল। বুঝতে পারলাম এই ৩৬ বছর বয়সে এসেও ক্রিকেটের প্রতি ওর ভালবাসা বিন্দুমাত্র কমেনি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন