ইস্টবেঙ্গলে যখন স্বপ্নভঙ্গ হওয়ার আশঙ্কা, সবুজ-মেরুন শিবিরে রীতিমতো খুশির হাওয়া। নয় বছর পরে কলকাতা প্রিমিয়ার লিগ জয়ের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হতেই বদলে গিয়েছে আবহ। শনিবার সকালে অনুশীলনে ফুটবল নয়, অভিনব ‘ফুট ক্রিকেট’ খেললেন হেনরি কিসেক্কারা!

মোহনবাগান মাঠে ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পরে ২৪ জন ফুটবলারকে দু’দলে ভাগ করে দেন কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী। দু’টি ফুটবল দু’দিকে বসিয়ে তৈরি করা হয় উইকেট। ছয় ওভারের খেলায় বল ও ব্যাট করতে হবে পা দিয়েই। ক্যাচ নেওয়ার সময় অবশ্য হাত ব্যবহার করা যাবে। অধিনায়ক শিল্টন পালের দল এ দিন দু’বল বাকি থাকতেই জিতে যায়। 

কলকাতা প্রিমিয়ার লিগে মোহনবাগানের পরের ম্যাচ বুধবার ইস্টবেঙ্গলকে আটকে দেওয়া কাস্টমসের বিরুদ্ধে। এই ম্যাচে জিতলে খেতাব প্রায় হাতের মুঠোয় চলে আসবে দিপান্দা ডিকাদের। এই পরিস্থিতিতে ম্যাচ প্র্যাক্টিসের বদলে হঠাৎ ‘ফুট ক্রিকেট’ কেন? টিম ম্যানেজমেন্টের যুক্তি, টানা ম্যাচ খেলে চলেছেন ফুটবলারেরা। তাই আলাদা করে ম্যাচ প্র্যাক্টিসের প্রয়োজন নেই। ফুটবলারদের চনমনে রাখতেই অভিনব অনুশীলনের ভাবনা। শুক্রবারও ম্যাচ প্র্যাক্টিস হয়নি। শারীরিক শক্তি বাড়ানোর অনুশীলন হয়েছে। এ দিন ‘ফুট ক্রিকেট’ শুরু হওয়ার আগে হয় গতি বাড়ানোর অনুশীলন। ডিকা অবশ্য এ দিন ফিটনেস ট্রেনিং করেই মাঠ ছাড়েন। আজহারউদ্দিন মল্লিকেরা যখন ব্যস্ত ‘ফুট ক্রিকেট’ খেলতে, ক্যামেরুনের স্ট্রাইকার তখন বরফ জলে শরীর ডুবিয়ে বসেছিলেন। 

ফুটবলারদের তরতাজা রাখাই শুধু নয়, মোহনবাগান কোচ মরিয়া আত্মতুষ্টি ঠেকাতেও। পিয়ারলেসের বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের হারের পর থেকেই ফুটবলারদের নিয়ে ক্লাস করছেন। আলাদা করে কথা বলছেন। বোঝাচ্ছেন, এখনও লিগ শেষ হয়ে যায়নি। সামনে দু’টো কঠিন ম্যাচ। যে কোনও মুহূর্তে পয়েন্ট খোয়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আত্মতুষ্ট হয়ে পড়লে চলবে না। ডিকারা যদিও দাবি করলেন, তাঁরা আত্মতুষ্ট নন। কোনও অবস্থাতেই খেতাব হাতছাড়া করতে চান না। এ দিকে, শনিবার রাতেই কলকাতায় পৌঁছে গিয়েছেন জাপানি মিডফিল্ডার ইউতা কিনোয়াকি। তবে তিনি কাস্টমসের বিরুদ্ধে খেলবেন কি না, তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে।