ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এখন পর্যন্ত খুব ভাল খেলেনি ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধবার পল পোগবার সৌজন্যে সব কিছু ঠিকঠাক শুরু করলেন জোসে মোরিনহোর ফুটবলাররা। বার্নের মাঠে ইয়ং বয়েজকে তাঁরা সহজেই ৩-০ হারালেন। পোগবা নিজেই দু’টি গোল করলেন। অন্য গোলটি অ্যান্থনি মার্শিয়ালের।

ম্যাচের পরে ম্যান ইউ অধিনায়ক পোগবার মুখে শোনা গেল ম্যানেজার মোরিনহোর প্রশংসা। অথচ দু’জনের সম্পর্ক যথেষ্ট খারাপ। পোগবা খুশি ম্যাচে পেনাল্টি মারার সুযোগ পেয়ে। বললেন, ‘‘পেনাল্টি থেকে গোল করা নিয়ে সংশয় ছিল না। জানতাম আগের ম্যাচেই বার্নলির বিরুদ্ধে পেনাল্টি নষ্ট করেছি। শটটা আটকে দিয়েছিল জো হার্ট। তখনই ঠিক করেছিলাম, একই ভুল আর করব না। সতীর্থ সবাই আমার উপর আস্থা রেখেছে। ওদের ধন্যবাদ। ধন্যবাদ ম্যানেজারকেও।’’ পাশাপাশি পোগবার প্রশংসা করলেন মোরিনহোও, ‘‘ফুটবলারদের মধ্যে এই সাহসটাই দেখতে চাই। বার্নলির বিরুদ্ধে ও গোল করতে পারেনি। কিন্তু দল তার পরেই যে পেনাল্টি পেল, সেটা ও মারতে গেল। ওই গোলে ২-০ তেই ম্যাচের রাশও আমাদের হাতে চলে এল।’’ 

এ দিনই ম্যাঞ্চেস্টার সিটি এতিহাদে হেরে গেল ফ্রান্সের ক্লাব লিয়ঁর কাছে। অথচ ইপিএলে গত মরসুমে তারা ১০০ পয়েন্ট পেয়েছে। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তারা টানা চারটি ম্যাচে হেরে গেল। নির্বাসনের জন্য সিটির ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা এ দিন টাচলাইন বা ড্রেসিংরুমে থাকতে পারেননি। বলা হচ্ছে, সিটির হারের এটাও কারণ। আশ্চর্যের, এতিহাদে পনেরো হাজার আসন খালি ছিল। যা নিয়ে মুখ খুললেন গুয়ার্দিওলাও, ‘‘আমাদের এখন একটাই লক্ষ্য। পরের ম্যাচগুলোয় ভাল খেলা। যাতে সমর্থকরা ভাবেন, এ বার খেলা দেখতে যাওয়া উচিত।’’ ফ্রান্সের ক্লাব প্রথমার্ধেই ২-০ করে ফেলে। গোল করেন ম্যাক্সওয়েল কর্নেট ও নাবিল ফকির। ৬৭ মিনিটে একটি গোল শোধ করেন বের্নার্দো সিলভা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ

ইয়ং বয়েজ ০   •   ম্যান ইউ

এ দিকে স্ব-মেজাজে অভিযান শুরু করল গত তিন বারের খেতাবজয়ী রিয়াল মাদ্রিদ। দারুণ ভাবে জ্বলে উঠলেন গ্যারেথ বেল। নিজেদের মাঠে রোমাকে রিয়াল হারাল ৩-০। সেরা ঘটনা ইস্কোর অসাধারণ ফ্রিকিক থেকে গোল। অন্য দুটি গোল বেল ও মারিয়ানো দিয়াজের। অন্য ম্যাচে বায়ার্ন মিউনিখ ২-০ হারিয়েছে বেনফিকাকে।