• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাংলার হয়ে খেলাই প্রেরণা ডিন্ডার

Ashoke Dinda
বাংলাকে আরও এক বার লড়াইয়ে ফিরিয়ে আনলেন ডিন্ডা। —ফাইল চিত্র।

বাংলাকে রঞ্জি ট্রফি জেতানোর স্বপ্নই এখনও তাতিয়ে চলেছে অশোক ডিন্ডাকে। তাই ভারতীয় দলে খেলার সুযোগ আর না পেলেও তিনি হতাশ নন। বরং বাংলার হয়ে খেলতেই অনুপ্রাণিত হন তিনি। মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচের তৃতীয় দিন দুই ওপেনারকে ফিরিয়ে বাংলাকে আরও এক বার লড়াইয়ে ফিরিয়ে আনেন ডিন্ডা। ম্যাচ শেষে জানিয়ে দেন, তিন পয়েন্ট নিশ্চিত করার পরেই ছয় পয়েন্টের জন্য ঝাঁপাবে তাঁর দল।

ডিন্ডা বলেন, ‘‘গত আট বছর ধরে বাংলার হয়ে নিয়মিত খেলছি। প্রচুর ম্যাচ জিতিয়েছি। ভারতীয় দলে কয়েক বার সুযোগ পেয়েছি ঠিকই। কিন্তু নিয়মিত সদস্য হতে পারিনি। ক্রিকেট ভালবাসি, বাংলাকে ভালবাসি। তাই হতাশায় ক্রিকেট তো ছেড়ে যেতে পারি না। যত দিন ফিট থাকব, বাংলার হয়ে খেলে যাব।’’

সাম্প্রতিককালে ইডেনের পিচ পেসারদের সাহায্য করলেও মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচে দু’পক্ষের বোলিংয়ে সেই ধার দেখা যায়নি। সিএবি-র পিচ প্রস্তুতকারক সুজন মুখোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, পিচে যথেষ্ট বাউন্স থাকা সত্ত্বেও তার সুযোগ নিতে পারেনি দুই শিবিরের বোলাররা। কিন্তু ডিন্ডা জানিয়ে দেন, ‘‘এই পিচে উইকেট তোলা কঠিন।’’ যদিও পরে তিনি বলেন, ‘‘পিচকে দোষ দিতে চাই না। আমরা আজ পাঁচ উইকেট ফেলেছি। বিপক্ষের এক জন বোলারও পাঁচ উইকেট পেয়েছে এই পিচ থেকেই।’’

ডিন্ডার বোলিংয়ে যে বিষ দেখা গিয়েছে, ঈশান পোড়েল, বি অমিতদের মধ্যে ততটা আগ্রাসন দেখা যায়নি। পাটা পিচ দেখে উইকেটের সোজাসুজি বল রাখছিলেন ডিন্ডা। সেখানে ঈশান, অমিতদের বল পড়ছে উইকেটের এক হাত বাইরে। তাঁদের জন্য ডিন্ডার বার্তা, ‘‘আমি ১০৮টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছি, সেখানে ওরা খেলছে সপ্তম কি অষ্টম ম্যাচ। সময় দেওয়া হোক। এমনিতেই শিখে যাবে।’’

অধিনায়ক মনোজ তিওয়ারির দ্বিশতরান দলকে কতটা এগিয়ে দিল? ডিন্ডার উত্তর, ‘‘সব সময়েই ডাবল সেঞ্চুরি দলকে এক ধাপ এগিয়ে দেয়। ওর অসাধারণ ইনিংসের জন্যই আমরা লড়াই করার সুযোগ পাচ্ছি।’’ 

বাংলা ও মধ্যপ্রদেশের দুই ইনিংসের শুরুর দিকেই ম্যাচ বলের আকৃতি নিয়ে সমস্যা দেখা যায়। সম্প্রতি বিরাট কোহালি এস জি টেস্ট বল নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু ডিন্ডার সেই বল ব্যবহার করতে কোনও সমস্যা নেই। তিনি বলেন, ‘‘আমি তো কোনও সমস্যা খুঁজে পাই না। এস জি বল ভাল সুইং করে। ভারতীয় পরিবেশে এর থেকে ভাল বলে আমি খেলিনি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন