• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দ্রুততম গোলের নজির স্টার্লিংয়ের

Raheem Sterling
দাপট: ৩৮ সেকেন্ডে গোল করে চমক স্টার্লিংয়ের। ছবি: এএফপি

ফের ম্যাচ জয়ের ছন্দে ফিরল পেপ গুয়ার্দিওলার ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। ক্রিস্টাল প্যালেসের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করার পর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির দৌড় থামবে বলে আশায় ছিলেন কেউ কেউ। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির বিপক্ষ সব সমর্থকের এই আশাকে নিরাশায় পরিণত করে ফের জয় ফিরল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। ম্যাচের সেরা কেভিন দে ব্রুইন।

ওয়াটফোর্ডকে ঘরের মাঠে গুয়ার্দিওলার দল হারাল ৩-১। তার চেয়েও বড় ব্যাপার। ম্যাচের এক ৩৮ সেকেন্ডে গোল করে শোরগোল ফেলে দিলেন ম্যাঞ্চেস্টার সিটির রহিম স্টার্লিং। স্টার্লিং ছাড়াও ম্যাঞ্চেস্টার সিটির হয়ে এই ম্যাচে গোল পেয়েছেন সের্জিও আগুয়েরো। সিটির অপর গোল হয় এই দুই গোলের মাঝে বিপক্ষ দলের ক্রিশ্চিয়ান কাবাসেলে আত্মঘাতী গোল করায়। কেভিন দে ব্রুইনের ক্রস স্লাইডিং ট্যাকল করে বিপন্মুক্ত করতে গিয়ে গোলে ঢুকিয়ে দেন তিনি। ম্যাচের অন্তিম লগ্নে ওয়াটফোর্ডের হয়ে ব্যবধান কমান আন্দ্রে গ্রে। ওয়াটফোর্ডকে হারানোর পর বাইশ ম্যাচে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির পয়েন্ট হল ৬২। লিগ টেবলের শীর্ষেই রয়ে গেল তারা। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যাঞ্চেস্টার সিটির থেকে ১৫ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছে পেপ গুয়ার্দিওলার দল।  ম্যাচের শুরুতেই লেরয় সানের ক্রস থেকে এ বারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দ্রুততম গোল করেন রহিম স্টার্লিং। ফলে ম্যাচের শুরু থেকেই জাঁকিয়ে বসেন গুয়ার্দিওলার দলের ফরোয়ার্ডরা। প্রথমার্ধে কিছু সহজ সুযোগ নষ্ট না করলে গোলের সংখ্যা বাড়ত ম্যান সিটি এবং আগুয়েরো-র।

ম্যাচ জিতে ম্যাঞ্চেস্টার সিটি ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা বলছেন, ‘‘ক্রিস্টাল প্যালেসের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্ট নষ্ট করায় গোটা দল তেতে গিয়েছিল। ফলটা তাই ও।য়াটফোর্ড ম্যাচের শুরু থেকেই পাওয়া গিয়েছে। তবে প্রথমার্ধে ২-০ এগিয়ে থাকার পরে দ্বিতীয়ার্ধে আত্মতুষ্টি এবং ক্লান্তির কারণে গোলের সংখ্যা বাড়েনি আমাদের। এটা কাম্য নয় আমাদের দলের জন্য।’’

বাইশ রাউন্ডের পর ওয়াটফোর্ডের পয়েন্ট এই মুহূর্তে ২৫। শেষ ১৪ ম্যাচের মধ্যে দশটি ম্যাচেই হেরেছে মার্কো সিলভা-র দল। ম্যাচ হেরে ওয়াটফোর্ড ম্যানেজার মার্কো সিলভা ম্যান সিটি ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলার প্রশংসা করে বলে গেলেন, ‘‘প্রথম কুড়ি মিনিট খুব হালকা ভাবেই ম্যাচটা খেলল ছেলেরা। আর ওখানেই ম্যাচটার রাশ চলে যায় ম্যান সিটির হাতে। শেষ কুড়ি মিনিটে কিছু সুযোগ পেয়েছিলাম। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারিনি।’’ সঙ্গে জুড়ে দেন, ‘‘গুয়ার্দিওলাকে ধন্যবাদ। দুর্দান্ত ভাবে ম্যান সিটিকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। পেপ দেখিয়ে দিচ্ছেন, ওঁর ফুটবল দর্শন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও সমান ভাবে সচল।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন