রিয়াল কাশ্মীর ১      •     আইজল ০

আই লিগের চূড়ান্ত পর্বে এ বার প্রথম খেলতে নেমেই গত বছরের চ্যাম্পিয়ন মিনার্ভা এফসি-কে হারিয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছিল তারা। বুধবার দু’বছর আগের আই লিগ চ্যাম্পিয়ন আইজল এফসি-কে হারাল সেই রিয়াল কাশ্মীর এফসি। ম্যাচের ফল ১-০।

শ্রীনগরের টিআরসি টার্ফ মাঠে ম্যাচের ৩০ মিনিটে খেলার একমাত্র গোলটি করেন বাজি আর্মান্দ। আই লিগে এটি তৃতীয় জয় রিয়াল কাশ্মীরের। এ দিনের জয়ের ফলে ছয় ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে এগারো দলের আই লিগে চতুর্থ স্থানে উঠে এল কাশ্মীরের দলটি। অন্য দিকে, এই ম্যাচ হারায় সাত ম্যাচে আইজল এফসি-র পয়েন্ট পাঁচ। তারা রইল নয় নম্বরে। রিয়াল কাশ্মীর কোচ ডেভিড রবার্টসন এ দিন প্রথম মাঠে নামিয়েছিলেন ঘানা থেকে আসা নবাগত ফুটবলার আবেদনেগো কোফি তেতেহ-কে। তবে প্রথমার্ধে পিছিয়ে গিয়েও দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধের একাধিক সুযোগ পেয়েছিল আইজল। কিন্তু সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি তারা।

হার বাঁচাল বেঙ্গালুরু: অপরাজিত তো থাকলেনই সুনীল ছেত্রীরা, চাপের মুখে পড়েও শেষ পর্যন্ত বেঙ্গালুরু থেকে গেল লিগ টেবলের শীর্ষে। ইন্ডিয়ান সুপার লিগে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নর্থইস্টের কাছে পিছিয়ে পড়েও ১-১ ম্যাচ ড্র করলেন চেঞ্চো গিলসনরা। বুধবার গুয়াহাটিতে ঘরের মাঠে এলকো শতৌরির দল প্রথমে এগিয়ে গিয়েছিল। বিরতির নয় মিনিট পরে ফেড্রিকো গেলেগোর গোলে এগিয়ে যায় পাহাড়ি দলটি। ৮৮ মিনিট পর্যন্ত এগিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা করতে পারল না এলকোর দল। হরমনজোৎ খাবরার ক্রস থেকে বল পেয়ে গোল করে যান ভূটানের ‘রোনাল্ডো’ চেঞ্চো। ফলে লিগ টেবলে নয় ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট পেয়ে শীর্ষে থাকল বেঙ্গালুরু। আর ১০ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট হল নর্থইস্টের।