• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘ঘর’ ছেড়ে বেরোলে ফল ভোগ করতে হবে

Rene Higuita
স্মৃতিচারণ: ইটালি বিশ্বকাপের প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের সেই মুহূর্ত। গোল ছেড়ে বেরিয়েছিলেন কলম্বিয়ার গোলকিপার হিগুইতা। সেই সুযোগে তাঁকে পিছনে ফেলে গোলের পথে ক্যামেরুনের রজার মিল্লা (বাঁ-দিকে)। ফাইল চিত্র

করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে রক্ষার স্বার্থে এ বার অভিনব বার্তা দিলেন রেনে হিগুইতা। যাঁর শূন্যে  লাফিয়ে কাঁচির মতো পা জোড়া করে মাথার পিছন দিয়ে মারা ‘স্করপিয়ন কিক’ ফুটবলবিশ্বে আলোড়ণ ফেলেছিল। গোলকিপার হলেও ফুটবল জীবনে মোট ৪১টি গোল করেছেন তিনি। সাতটি গোল আন্তর্জাতিক ম্যাচে।  

কিন্তু নিজের জায়গা ছেড়ে উপরে উঠে গিয়ে এই গোল করার নেশাই আঁধার নামিয়ে এনেছিল তাঁর জীবনে। ইটালিতে ১৯৯০ বিশ্বকাপে শেষ ষোলোর ম্যাচে ক্যামেরুনের বিরুদ্ধে তাঁর দেশ কলম্বিয়াকে সাহায্য করতে প্রায় মাঝমাঠে উঠে এসেছিলেন কিংবদন্তি গোলকিপার। কিন্তু তাঁর পা থেকে বল ছিনিয়ে নিয়ে গোল করে আসেন রজার মিল্লা। ১-২ হেরে বিশ্বকাপের শেষ ষোলো থেকে ছিটকে যায় হিগুয়েতার দেশ।

সেই ‘ভুলের’ ছবি টুইটারে দিয়ে  তারকা গোলকিপার সকলকে সাবধান করে দিচ্ছেন করোনা নিয়ে। সারা বিশ্ব জুড়ে আর্জি জানানো হচ্ছে ঘরবন্দি হয়ে থাকার। অনেকেই সেই পরামর্শ শুনতে চাইছেন না। হিগুইতা তাই নিজের সেই ভুলের ছবি তুলে দিয়ে লিখেছেন, ‘‘অপ্রয়োজনে নিজের জায়গা ছেড়ে বাইরে বেরোলে কী ঘটতে পারে, এই ছবি তার প্রমাণ। প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাইরে বেরোবেন না। কথা না শুনলে বিপদ অনিবার্য।’’ যোগ করছেন, ‘‘সবার আগে সুস্থ থাকা। বাড়ি বসেই যদি কাজ করতে পারেন, তা হলে বেরোবেন কেন?’’

করোনা হানা দিয়েছে খেলোয়াড়দের পৃথিবীতেও। ফুটবলারদের মধ্যে পাওলো মালদিনি, পাওলো দিবালা, ব্লেজ় মাতুইদি, মারুয়ান ফেলাইনির মতো তারকা আক্রান্ত। এই সংখ্যা বাড়তে দিতে চান না হিগুইতা। শুধু ফুটবলার নয়, সারা বিশ্বের জন্যই এই বার্তা নিয়ে এসেছেন প্রাক্তন তারকা। করোনা সংক্রমণ এড়াতে মেসি থেকে নেমার প্রত্যেকে সরব। প্রত্যেকের মুখেই একটি অনুরোধ, ‘‘বাইরে বেরোবেন না।’’ 

বাড়িতে থেকে কী ভাবে ট্রেনিং করা যায়, তার ভিডিয়োও আপলোড করেছেন মেসি। এমনকি একঘেয়েমি কাটানোর জন্য ফুটবলের পরিবর্তে ‘টয়লেট পেপার’ জাগলিং করেও সময় কাটানোর চেষ্টা করছেন অনেকে। প্রত্যেকের বক্তব্যই এক, ‘‘সকলের সুস্থতার বিষয়টি অগ্রাধিকার পাক। বাইরে যাবেন না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন