তারকাদের দাপট উইম্বলডনে। চেনা ফর্মে রজার ফেডেরার। আশঙ্কা উড়িয়ে ছন্দে রাফায়েল নাদালও। দু’জনেরই দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার দিন ফ্যাব ফোরের আর এক সদস্য অ্যান্ডি মারেও জিতলেন। তবে তার জন্য কম ঘাম ঝরাতে হল না ব্রিটিশ চ্যাম্পিয়নকে। মেয়েদের সিঙ্গলসে আবার অঘটন। প্রথম রাউন্ডেই পোশাক বিতর্ক মাথায় নিয়ে ছিটকে গেলেন গত বারের ফাইনালিস্ট ইউজিনি বুশার্ড।
তৃতীয় সেট তখন শেষের দিকে। হঠাৎ কোর্টেই টাওয়েল দিয়ে মাথাটা প্রায় ঢেকে ফেললেন দামির দুমহুর। কোর্ট পাল্টানোর সময়ে চেয়ারে ক্লান্তিতে প্রায় এলিয়েও পড়েন বসনিয়ার টেনিস প্লেয়ার। সঙ্গে সঙ্গে টুইটারে ভাসল, ‘‘হবে না। একে চড়া রোদ। তার উপর কোর্টে আগুন ছোটাচ্ছে রজার ফেডেরার।’’
মঙ্গলবার উইম্বলডনের দ্বিতীয় রাউন্ডে এতটাই দাপটে উঠলেন ফেড এক্সপ্রেস। প্রচণ্ড গরমেও সাত বারের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নের তাঁর থেকে দশ বছরের জুনিয়রকে ৬-১, ৬-৩, ৬-৩ হারানোর জন্য ঘাম ঝড়াতেও হল কোথায়! দু’নম্বর বাছাইয়ের সেই অনায়াস কোর্ট মুভমেন্ট আর চেনা দাপটও যেন এখন এসডব্লু নাইনটিনের স্ট্রবেরি আর ক্রিমের মতোই ঐতিহ্য হয়ে উঠেছে। যেটা না থাকলে উইম্বলডনের শুরুটাও দর্শকদের কাছে হয়তো পানসে হয়ে যায়। ২৬টা উইনার আর দুরন্ত ফিটনেসে সুইস মহাতারকার ভক্তদের জন্য দিনটা অবশ্য যতই উজ্জ্বল হয়ে উঠুক, গরমের দাপট আর কোর্টের গতি আর বাউন্স নিয়ে হয়তো ফেড এক্সপ্রেস চিন্তিত। ম্যাচের শেষে বলেছেন, ‘‘প্রথম সপ্তাহে সাধারণত আকাশ আরও মেঘলা থাকে এখানে। এ বার কোর্ট আরও গতিময় লাগছে। কোর্টের ব্যবহার অন্য রকম লাগছে।’’ অভিষেকের পর এই নিয়ে ১৬ বারের অভিযান শুরু করলেও গত পাঁচ বছরে মাত্র এক বারই খেতাব জিতেছেন ফেডেরার। দাপটে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠলেও ফেড এক্সপ্রেসের ভক্তরাও যা নিয়ে চিন্তায়।

অপ্রতিরোধ্য নাদাল।

এ দিন উইম্বলডনে আরও একটা কৌতুহল ছিল এক নম্বর কোর্ট নিয়ে।  সাধারণত মহাতারকাদের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে দর্শকভর্তি স্ট্যান্ড হওয়াটা শক্ত। কিন্তু রাফায়েল নাদালের প্রথম রাউন্ড ম্যাচ নিয়ে উৎসাহ ছিল তুঙ্গে। কারণ স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নের এখনকার ফর্ম। ক্লে কোর্টের সম্রাটের হাত থেকে এ মরসুমে ফরাসি ওপেনের সিংহাসন হাতছাড়া হয়েছে। প্রথম রাউন্ডেও যে তাঁকে নড়বড়ে দেখাবে না তার কোনও নিশ্চয়তা ছিল না। অবশ্য অঘটনের আশঙ্কা উড়িয়ে নাদাল সহজেই জিতলেন ব্রাজিলের টমাস বেলুচ্চির বিরুদ্ধে। ফল নাদালের পক্ষে ৬-৪, ৬-২, ৬-৪। দশম বাছাই নাদালের বিরুদ্ধে এর আগে চার বারের সাক্ষাতে একটা সেটও দখল করতে পারেননি বেলুচ্চি। এ দিনও পারেননি। তবে নাদালকে জেতার জন্য অনেক বেশি পরিশ্রম করতে বাধ্য করিয়েছেন বিশ্বের ৪২ নম্বর।

গরমের দাপট সামলে জিতলেন অ্যান্ডি মারেও। তবে বিশ্বের ৫৯ নম্বর প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে ৬-৪, ৭-৬ (৭-৩), ৬-৪  জয়ের পর নিজেই স্বীকার করলেন, ‘‘ম্যাচটা কঠিন ছিল।’’

তবে দিনের সবচেয়ে আলোচিত ম্যাচ বোধহয় ছিল বুশার্ড আর চিনের অবাছাই ইং ইং দুয়ানের। কানাডিয়ান তারকা যে ম্যাচে ৬-৭ (৩), ৪-৬ হারার পর কালো অন্তর্বাস দেখা যাওয়ায় শাস্তির মুখেও পড়তে পারতেন। কিন্তু চেয়ার আম্পায়ার তা দেননি। তবে বুশার্ড হেরে গেলেও দ্বিতীয় বাছাই পেত্রা কিভিতোভা, ১৩ নম্বর বাছাই অ্যাগনিয়েস্কা রাদওয়ানস্কাও এ দিন দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন। এর মধ্যে হঠাৎ ভেনাস আর সেরেনা উইলিয়ামস নাম তুলে নিলেন ডাবলস থেকে।

 

ছবি: এএফপি