• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সচিন-সৌরভকেই এগিয়ে রাখছেন চ্যাপেল

Sachin and Sourav
ইয়ান চ্যাপেল মনে করছেন, সচিন তেন্ডুলকর এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে অনেক কঠিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলতে হয়েছিল।

Advertisement

বিরাট কোহালি এবং রোহিত শর্মাকে সাদা বলের ক্রিকেটে অন্যতম সেরা দুই ব্যাটসম্যান বলে ধরা হয়। দুই ব্যাটসম্যানের রান এবং রেকর্ডও সে কথা বলছে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক ইয়ান চ্যাপেল মনে করছেন, সচিন তেন্ডুলকর এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে অনেক কঠিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলতে হয়েছিল। অনেক ভাল মানের বোলারদের বিরুদ্ধে ব্যাট করতে হয়েছিল।

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ইএসপিএন ক্রিকইনফো’য় নিজের কলামে চ্যাপেল লিখেছেন, ‘‘একটা তর্ক উঠতেই পারে যে কোহালি এবং রোহিত হল ভারতের সর্বকালের সেরা ওয়ান ডে ব্যাটসম্যান। সে ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জার হিসেবে স্বাভাবিক ভাবেই উঠে আসবে সচিন এবং সৌরভের নাম। যারা ১৫ বছর ধরে প্রতিপক্ষ বোলারদের কাছে যন্ত্রণার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল।’’ 

এর পরেই চ্যাপেল উদাহরণ দিয়ে দেখিয়ে দেন, সচিন-সৌরভের যুগে কী ভাবে সব ক’টি আন্তর্জাতিক দলে দু’জন করে খুব ভাল ফাস্ট বোলার ছিল। চ্যাপেল লিখেছেন, ‘‘সচিন-সৌরভ জুটি বেশিরভাগ সময়ই খুব ভাল ফাস্ট বোলারদের বিরুদ্ধে ইনিংস ওপেন করত। পাকিস্তানের ওয়াসিম আক্রম-ওয়াকার ইউনিস, ওয়েস্ট ইন্ডিজের কার্টলি অ্যামব্রোজ-কোর্টনি ওয়ালশ, অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাকগ্রা-ব্রেট লি, দক্ষিণ আফ্রিকার অ্যালান ডোনাল্ড-শন পোলক, শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা-চামিন্ডা ব্যাস। এই সব বোলার যে কোনও সময়ে ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা নিত।’’

পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক ইমরান খানের একটি মন্তব্যের কথাও এই প্রসঙ্গে টেনে এনেছেন চ্যাপেল— ‘‘আপনি এক জন মানুষের বিচার করবেন তার প্রতিপক্ষদের কথা মাথায় রেখে,’’ বলতেন ইমরান। তবে চ্যাপেল এও লিখেছেন, ‘‘সচিন যত ইনিংস খেলেছে তত ইনিংস যদি বিরাট খেলে আর সৌরভ যত ইনিংস খেলেছে তত ইনিংস যদি রোহিত খেলে আর একই ধারাবাহিকতায় রান করে যায়, তা হলে দেখা যাবে, বর্তমান দুই ভারতীয় ব্যাটসম্যান তাদের পূর্বসূরির চেয়ে বেশি রানই করবে।’’ 

চ্যাপেল এটা মেনে নিয়েছেন যে, সাদা বলের ক্রিকেটে রোহিত এবং কোহালি জুটি সর্বকালের সেরা। ‘‘ওদের দু’জনের ওয়ান ডে এবং টি-টোয়েন্টি রেকর্ড অসাধারণ। কোহালির তো দু’ধরনের ক্রিকেটেই পঞ্চাশের উপরে গড়। এটা মানতে হবে যে, সচিন খুব কমই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলেছে। আর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট জনপ্রিয় হওয়ার আগেই সৌরভের ক্রিকেট জীবন শেষ হয়ে যায়,’’ লিখেছেন চ্যাপেল। 

প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক মনে করেন, ভারতীয় দর্শকরা সত্যি ভাগ্যবান যে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সেরা চার ব্যাটসম্যানকে সামনে থেকে দেখার সুযোগ পেয়েছে তারা। চ্যাপেলের কথায়, ‘‘সচিনের হাতে সব ধরনের স্ট্রোক থাকলেও বাউন্সি উইকেটে ওর উচ্চতায় ব্যাকফুটে যে সব শট খেলত, তা সত্যিই বিস্ময়কর। আবার সৌরভ যে দিন ছন্দে থাকত, সে দিন ওর চেয়ে ভাল অফসাইডের খেলোয়াড় কেউ ছিল না। কভার অঞ্চলে যত ফিল্ডারই রাখা হোক না কেন, সৌরভ ঠিক ফাঁক খুঁজে নিত।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন