• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেলবোর্নে চোটে ছিটকে গেলেন সানিয়া

Sania
ধাক্কা: ডান পায়ে স্ট্র্যাপ। চোট পেয়ে ছিটকে গেলেন সানিয়া।—ছবি পিটিআই।

Advertisement

পায়ের পেশিতে চোটের জন্য আগের দিনই জানিয়েছিলেন, অস্ট্রেলীয় ওপেনে মিক্সড ডাবলসে খেলবেন না। শুধু ডাবলসে খেলবেন। বৃহস্পতিবার ডাবলস ম্যাচেও যখন নেমেছিলেন পায়ে মোটা ব্যান্ডেজ ছিল। কিন্তু সেই চোটই কাল হল। যে জন্য ডাবলস ম্যাচের মাঝপথেই সরে দাঁড়াতে হল তাঁকে— সানিয়া মির্জাকে।

মেলবোর্ন পার্কে এ দিন ইউক্রেনের নাদিয়া কিচেনকের সঙ্গে জুটি বেঁধে খেলতে নামার পরে প্রথম সেট ২-৬ হেরে গিয়েছিলেন সানিয়ারা। তাঁদের লড়াই ছিল চিনের শিনউইন হান ও লিন ঝু-র বিরুদ্ধে। দ্বিতীয় সেটে ইন্দো-ইউক্রেন জুটি ০-১ পিছিয়ে থাকার সময় সানিয়া ম্যাচ ছেড়ে দেন। অনুশীলনের সময় এই চোট পেয়েছিলেন সানিয়া। যে ৩৩ মিনিট ম্যাচ চলে, তাতে সানিয়াকে স্বচ্ছন্দ মনে হয়নি। গত সপ্তাহে  ডাবলসে প্রাক্তন বিশ্বসেরা সানিয়া এবং কিচেনক হোবার্ট আন্তর্জাতিক ওপেন খেতাব জিতেছিলেন। দ্বিতীয় বাছাই চিনা জুটিকে ফাইনালে হারিয়ে।

মা হওয়ার জন্য দু’বছর টেনিস প্রতিযোগিতার বাইরে ছিলেন ডাবলসে তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী সানিয়া। প্রথম দিকে চোটের সমস্যাও তাঁকে ভুগিয়েছিল। এর আগে ২০১৭ সালে বেথানি মাটেক স্যান্ডসের সঙ্গে ব্রিসবেনে তিনি ট্রফি জিতেছিলেন। ভারতীয় সমর্থকদের আশা, চোট কাটিয়ে দ্রুতই তিনি কোর্টে ফিরে আসবেন।

এ দিকে অস্ট্রলীয় ওপেনে বৃহস্পতিবার মেয়েদের সিঙ্গলসে বিশ্বের তিন নম্বর সিমোনা হালেপ দ্বিতীয় রাউন্ডে ৬-২, ৬-৪ হারালেন বাছাই পর্ব পেরিয়ে আসা হ্যারিয়েট ডার্টকে। তবে স্কোরলাইন দেখে যতটা মনে হচ্ছে, ততটা সহজে রোমানিয়ার তারকার জয় আসেনি। ডার্টের বাধার সামনে টানা না হলেও মাঝেমধ্যেই পড়তে হচ্ছিল তাঁকে। তাই ম্যাচের পরে হালেপ বলেন, ‘‘একেবারেই সহজ জয় ছিল না। আমার প্রতিদ্বন্দ্বী যে খুব জোরে বল মারছিল তা নয়। তবে যেখানে ও বলটা রাখছিল সেখান থেকে বল ফেরানো কঠিন হয়ে উঠছিল।’’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘একটা সময় আমি ৫-১ এগিয়ে ছিলাম। তার পরে জানি না কী হল, মনসংযোগ ঠিক রাখতে পারলাম না। তবে শেষ পর্যন্ত যে ভাবে ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ ফিরিয়ে আনতে পেরে জিতেছি তাতে খুশি।’’

বিশ্বের পাঁচ নম্বর  ইউক্রেনের এলিনা সোয়াইতোলিনাও তৃতীয় রাউন্ডে উঠেছেন। তিনি ৬-২, ৭-৬ (৬) জেতেন লরেন ডেভিসের বিরুদ্ধে। এক ঘণ্টা ৩৪ মিনিটের লড়াইয়ের পরে বলেছেন, ‘‘লরেনের বিরুদ্ধে খেলা সহজ নয়। বিশেষ করে ওর জোরালো শটগুলো সামলানো। কোর্টে ভাল ভাবে নড়াচড়া করার ক্ষমতা থাকতে হবে। আমি সেটা আজ পেরেছি।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন