কমনওয়েলথ গেমসে ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পরে হতাশ হয়ে পড়েছিলেন সর্দার সিংহ। সেই সময় সচিন তেন্ডুলকরের সঙ্গে ফোনে কথা বলে অনুপ্রেরণা পান। জাতীয় দলে সফল প্রত্যাবর্তন ঘটান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে।

সদ্য আন্তর্জাতিক হকি থেকে অবসর নেওয়ার পরে নয়াদিল্লিতে সংবাদিকদের এমনই জানালেন সর্দার। ৩২ বছর বয়সি প্রাক্তন হকি খেলোয়াড় গত বুধবার তাঁর অবসরের কথা ঘোষণা করেছিলেন। এশিয়ান গেমসে সোনা জিততে ব্যর্থ হওয়ার পরে ১২ বছরের খেলোয়াড়জীবনে ইতি টানার সিদ্ধান্ত নেন সর্দার। খারাপ ফর্মের জন্য গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমস থেকে বাদ পড়েছিলেন সর্দার। এর পরেই তিনি কিংবদন্তি ক্রিকেটারকে ফোন করেছিলেন। তাঁর পরামর্শে প্রেরণা পেয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দলে ফিরে ঐতিহাসিক রুপো জেতেন তিনি। 

সর্দার বলেন, ‘‘সচিন আমাকে গত ৩-৪ মাসে আমাকে অনেক সাহায্য করেছেন। যেটা সহজ ছিল না।’’ সর্দার আরও বলেছেন, ‘‘ওঁকে ফোন করে পাইনি এমন কখনও হয়নি। কমনওয়েলথ গেমসের দল থেকে বাদ পড়ার পড়ে ভেঙে পড়েছিলাম। সচিনকে তখন ফোন করে জানতে চাই, আপনি ব্যাট করতে নেমে শূন্য রানে আউট হলে কী করতেন।’’ কী বলেন সচিন এর পরে তাঁকে? ‘‘সচিন ২০ মিনিট আমার সঙ্গে কথা বলেন। বলেন, সমালোচনা ভুলে যাও, ফোকাস ধরে রাখ। আমার খেলার পুরনো ভিডিয়ো দেখতে, নিজের স্বাভাবিক খেলাটা ধরে রাখতে বলেন। ওঁর এই পরামর্শ আমাকে জাতীয় দলে ফিরে আসতে সাহায্য করে,’’ বলেন সর্দার।