• অশোক মলহোত্র
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রথম বৈঠকেই নির্বাচকরা এত ঝুঁকি না নিলে পারত

indian selectors meeting
অন্দরমহল। দেবাঙ্গ গাঁধী-সহ জাতীয় নির্বাচকদের সঙ্গে দল নির্বাচনী বৈঠকে ধোনি। বৃহস্পতিবার। ছবি: টুইটার।

ভারতের নতুন জাতীয় নির্বাচক কমিটির প্রথম দল নির্বাচনী বৈঠকের নির্যাস দেখে আমার একটু অবাকই লাগল। প্রথম টিম তৈরি করছে এমএসকে প্রসাদরা। সেটাও নিউজিল্যান্ডের মতো শক্তিশালী ওয়ান ডে টিমের বিরুদ্ধে। সেখানে এত ঝুঁকি নেওয়ার কি খুব দরকার ছিল?

কেউ কেউ বলতে পারেন, খারাপ কী হল। অশ্বিন টানা খেলছে, ও বিশ্রাম পেল। জাডেজাও। কেদার যাদব, মনদীপ সিংহের মতো নতুনদের নেওয়া হয়েছে। ভাল, আমার আপত্তি নেই। যদি টিমটা ভাল করতে পারে, তা হলে মেনে নিতে হবে যে ভারতের বেঞ্চস্ট্রেংথ দারুণ। কিন্তু না পারলে? তখন তো দায় নির্বাচক কমিটির উপরেই পড়বে। লোকে তো তখন বলবে যে, কেন এত ঝুঁকি নিলে?

আসলে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজে যদি এই টিম বাছা হত, কিছু বলার ছিল না। কিন্তু এরা নিউজিল্যান্ড। কেন উইলিয়ামসন থেকে কোরি অ্যান্ডারসন, জিমি নিশাম সবাই থাকবে। এত সহজ হবে নাকি ওদের হারানো? আর ঘরের মাঠে খেলা তো কী? আমার তো মনে হয় না, ওয়ান ডে উইকেট টার্নার হবে। আর যদি পাটা হয়, নিউজিল্যান্ডের মহড়া নেওয়া কিন্তু সহজ হবে না।

মণীশ পাণ্ডে, কেদার যাদব, মনদীপ সিংহদের টিমে রাখা নিয়ে আমার কোনও বক্তব্য নেই। ভারত ‘এ’-র হয়ে ওরা অস্ট্রেলিয়া সফরে ভাল করেছে, তার পুরস্কারও পেয়েছে। আমার প্রশ্ন, নেওয়া তো হল। কিন্তু খেলানো সম্ভব হবে কত জনকে? মিডল অর্ডারে যদি সুরেশ রায়না খেলে তা হলে মণীশ পাণ্ডেকে খেলানো যাবে তো? ওপেনিংয়ে ভাবা যেত পারত মণীশকে। কিন্তু নির্বাচকরা তো বলেছে শুনলাম, ওরা মনদীপকে ওপেনিংয়ের জন্য তৈরি করতে চায়।

রায়নার নির্বাচন নিয়েও আমার প্রশ্ন আছে। এমন কী করেছে রায়না? আর রায়না যদি টিমে থাকতে পারে, তা হলে গৌতম গম্ভীর নয় কেন?  যুবরাজ সিংহকে ভাবা হল না। কিন্তু হার্দিক পাণ্ড্যকে ঠিক নেওয়া হল। ওর ভাল পারফম্যান্সও তো মনে করা যাচ্ছে না। মহম্মদ শামি— তাকেও দেখলাম অশ্বিনদের সঙ্গে বিশ্রাম দেওয়া হল। শামি কী এমন খেলল যে ওকে দ্রুত বিশ্রামে পাঠাতে হবে? যদি দেশের মাটিতে পরের পর টেস্ট সিরিজের ভেবে এটা করা হয়, আমার বক্তব্য বিরাট কোহালিকেও তা হলে বিশ্রাম দিতে পারতে। কোহালিও তো টানা খেলে যাচ্ছে।

বললাম না, কিছু কিছু সিদ্ধান্ত আমার অবাক লেগেছে। অমিত মিশ্রর ব্যাপারটা আগে বলতে ভুলে গিয়েছিলাম। ও ভাল টি-টোয়েন্টি বোলার, কিন্তু ওয়ান ডে-তে কতটা কী করতে পারে সন্দেহ আছে। আসলে এত বদল, এত নতুন মুখের প্রয়োজন আমার মতে ছিল না। কেন জানি না মনে হচ্ছে, এ রকম একটা ঝুঁকির টিম করে আদতে নিউজিল্যান্ডের সুবিধে করে দিল ভারত। সিরিজে কী হবে জানি না, কিন্তু সিরিজের পূর্বাভাসে অন্তত অ্যাডভান্টেজ নিউজিল্যান্ড। কেন জানি না মনে হচ্ছে, এ রকম ঝুঁকির একটা টিম করে আদতে নিউজিল্যান্ডেরই সুবিধে করে দিল ভারত। এত বদল, এত নতুন মুখের প্রয়োজন আমার মতে ছিল না।

 

ওয়ান ডে টিম মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা, বিরাট কোহালি, অজিঙ্ক রাহানে, মণীশ পাণ্ডে, সুরেশ রায়না, হার্দিক পাণ্ড্য, অমিত মিশ্র, মনদীপ সিংহ, অক্ষর পটেল, কেদার যাদব, জসপ্রীত বুমরাহ, জয়ন্ত যাদব, উমেশ যাদব, ধবল কুলকার্নি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন