ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের নতুন তারকা হয়ে উঠছে ১৫ বছরের শেফালি বর্মা। ওপেন করতে নেমে যে মেয়ে ঝড় তুলেছে ক্যরিবিয়ানে। 

আগের দিন কনিষ্ঠতম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হাফসেঞ্চুরি করেছিল হরিয়ানার এই মেয়ে। ভেঙে দিয়েছিল সচিন তেন্ডুলকরের রেকর্ড। যে সচিন তার কাছে প্রেরণা। সেই সচিন-ভক্ত মেয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও ব্যাট হাতে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠল। গ্রস আইলেটে ২০ ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাত উইকেটে ১০৩ রান কোনও উইকেট না হারিয়েই তুলে দেয় ভারত। শেফালি ৩৫ বলে ৬৯ রান করে অপরাজিত থেকে যায়। স্মৃতি মন্ধানা করেন ২৮ বলে অপরাজিত ৩৩। মাত্র ১০.৩ ওভারে জয়ের রান তুলে নেয় ভারত। টি-টোয়েন্টি সিরিজে ভারত এখন এগিয়ে ২-০। 

ছোটবেলায় বড় শট মারার দক্ষতার জন্য কোচেদের নজরে পড়ে গিয়েছিল শেফালি। রোহতকে তাঁর প্রথম কোচ অশ্বিনী কুমার জানিয়েছেন, অনূর্ধ্ব-১৯ ছেলেদের সঙ্গে অনুশীলন করত এই মেয়ে। কারণ ওই বড় শট মারার ক্ষমতা। সেই সব শট এ বার দেখা যাচ্ছে ক্যারিবিয়ান সফরে। 

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শেফালির ৪৯ বলে ৭৩ রানের বিধ্বংসী ইনিংস দেখার পরে ভারতীয় মহিলা দলের কোচ ডব্লিউ ভি রামন টুইট করেন, ‘‘ইউ টিউবে শেফালির প্রথম টি-টোয়েন্টির ইনিংসটা দেখুন। সময় দেওয়ার জন্য কোনও আক্ষেপ করতে হবে না।’’       

তবে এই দুই ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি ভারতের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি জয়ে উল্ল্যেখযোগ্য ভূমিকা নেন অফস্পিনার দীপ্তি শর্মাও। ক্যারিবিয়ান মিডল অর্ডার ব্যাটিং ভেঙে পড়ে দীপ্তির অফস্পিনের সামনে। চার ওভারে ১০ রান দিয়ে চার উইকেট নেন তিনি।