• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আইসিসি বর্ষসেরা স্মৃতি, টি-টোয়েন্টির নেতা হরমন

Smriti
সফল: আইসিসির জোড়া পুরস্কার জিতলেন স্মৃতি। ফাইল চিত্র

Advertisement

ঝুলন গোস্বামীর পরে ভারতের দ্বিতীয় মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে আইসিসি পুরস্কার জিতলেন স্মৃতি মন্ধানা। তাও একই সঙ্গে জোড়া পুরস্কার। আইসিসির বর্ষসেরা মহিলা ক্রিকেটার এবং বর্ষসেরা মহিলা ওয়ান ডে ক্রিকেটার নির্বাচিত হলেন তিনি।

বাঁ হাতি ওপেনার মন্ধানা ১২টি ওয়ান ডে-তে ৬৬৯ রান করার পাশাপাশি ২০১৮-তে ২৫টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৬২২ রান করার পুরস্কার পেলেন। তাঁর ওয়ান ডে ম্যাচে রান করার গড় ৬৬.৯০। পাশাপাশি টি-টোয়েন্টিতে স্ট্রাইক রেট ১৩০.৬৭। শুধু তাই নয়, ২০১৮ মহিলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে সেমিফাইনালে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন তিনি। পাঁচ ম্যাচে করেন ১৭৮ রান। স্ট্রাইক রেট ১২৫.৩৫। বর্তমানে তাঁর ওয়ান ডে র‌্যাঙ্কিং চার এবং টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিং ১০। ঝুলন আইসিসি বর্ষসেরা মহিলার পুরস্কার জিতেছিলেন ২০০৭ সালে। তবে ঝুলন জিতেছিলেন একটি পুরস্কার। সে দিক থেকে স্মৃতি প্রথম ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটার যিনি এক ক্যালেন্ডার বর্ষে দুটি আইসিসি পুরস্কার জেতার নজির গড়লেন।

পুরস্কার জয়ের পরে উচ্ছ্বসিত স্মৃতির ভিডিয়ো বার্তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছে ভারতীয় বোর্ড। তাতে স্মৃতি বলেছেন, ‘‘এ রকম পুরস্কারের মাধ্যমে যখন কেউ নিজের পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি পায়, তখন আরও কঠোর পরিশ্রম করার ও দলের জন্য ভাল খেলার প্রেরণা পাওয়া যায়।’’ স্মৃতি আরও বলেছেন, ‘‘দক্ষিণ আফ্রিকায় (কিম্বারলি) যে সেঞ্চুরিটা আমি করেছিলাম, তাতে খুব তৃপ্তি হয়েছিল। এর পরে দেশের মাঠে অস্ট্রেলিয়া এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজটাও ভাল গিয়েছে আমার জন্য। একটা সময় অনেকে আমার সম্পর্কে বলত, দেশের মাঠে আমি বেশি রান করতে পারি না। তাই নিজের কাছেই নিজেকে প্রমাণ করার একটা তাগিদ ছিল। এই ব্যাপারটা আমায় আরও ভাল ক্রিকেটার হতে সাহায্য করেছে। পাশাপাশি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম চারটি ম্যাচ অবশ্যই স্মরণীয়।’’ 

এই জোড়া পুরস্কার জয়ের পরেই ক্রিকেট বিশ্ব জুড়ে অভিনন্দন বার্তায় ভাসছেন স্মৃতি। আইসিসির চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) ডেভিড রিচার্ডসন স্মৃতিকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, ‘‘স্মৃতি তাঁর দুরন্ত পারফরম্যান্সে ক্রিকেটপ্রেমীদের আনন্দ দিয়েছেন। এ বছরটা মেয়েদের ক্রিকেটের জন্য স্মরণীয় ছিল। গত বছর ওয়ান ডে বিশ্বকাপের পরে এ বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও মেয়েদের ক্রিকেটে দারুণ কিছু মুহূর্ত উপহার দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে।’’

স্মৃতির জোড়া পুরস্কার জয়ের পাশাপাশি ভারতের টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন হরমনপ্রীত কৌরকে বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক বেছে নেওয়া হয়েছে। এই দলে স্মৃতি এবং তাঁর সতীর্থ পুনম যাদবও আছেন। স্মৃতি এবং লেগ স্পিনার পুনম শুধু টি-টোয়েন্টি দলেই নয়, বর্ষসেরা ওয়ান ডে দলেও জায়গা পেয়েছেন। ওয়ান ডে দলের অধিনায়ক বেছে নেওয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ডের সুজি বেটসকে। গত নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতকে সেমিফাইনালে তুলে আনতে যে অবদান রেখেছিলেন হরমনপ্রীত, তাঁরই পুরস্কার পেলেন তিনি। ‘‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হরমনপ্রীত ১৮৩ রান করেছিলেন। স্ট্রাইক রেট ১৬০.৫। পাশাপাশি এই ক্যালেন্ডার বর্ষে ২৫টি ম্যাচে তিনি করেন ৬৬৩ রান। স্ট্রাইক রেট ১২৬.২। বর্তমানে তাঁর টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় স্থান তিন নম্বরে,’’ বিবৃতিতে জানিয়েছে আইসিসি।

বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক হিসেবে তাঁকে বেছে নেওয়ায় আবার অবাক হয়ে গিয়েছেন হরমনপ্রীত। তিনি বলেছেন, ‘‘সত্যি বলতে, ব্যাপারটা আমার কাছে অবাক করার মতো। গত দু’বছর আমরা যথেষ্ট টি-টোয়েন্টি ম্যাচ পাইনি। তাই দলের মধ্যে আত্মবিশ্বাস আনার ব্যাপারটা খুব কঠিন ছিল। এর কৃতিত্ব দলের সব সদস্যের। এই পুরস্কারের মূল্য আমার কাছে বিরাট। ভবিষ্যতে আরও ভাল খেলার চেষ্টা করব।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন