ঝড় তুললেন স্মৃতি মন্ধানা। মহিলাদের কিয়া টি২০ সুপার লিগ ম্যাচে ল্যাঙ্কাশায়ার থান্ডারের বিরুদ্ধে ৬০ বলে করলেন শতরান। যা সাত উইকেটে জেতাল তাঁর দল ওয়েস্টার্ন স্টর্মকে।

জেতার জন্য ১৫৪ রান করতে হত স্মৃতিদের। ৬১ বলে বাঁ-হাতি ওপেনারের ১০২ রানের সুবাদে ১৮.৪ ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেল ওয়েস্টার্ন স্টর্ম। স্মৃতির ইনিংসে ছিল এক ডজন বাউন্ডারি আর চারটি ছয়। ১৬৭.২১ স্ট্রাইকরেটে রীতিমতো শুক্রবার রাতে ম্যাঞ্চেস্টারে রীতিমতো তাণ্ডব চালালেন তিনি। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে এটা স্মৃতির প্রথম শতরান। এর আগে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে পাঁচটি অর্ধশতরান ছিল তাঁর।

তাত্পর্যের হল ল্যাঙ্কাশায়ার দলে ছিলেন ভারতীয় মহিলা টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক হরমনপ্রীত কৌর। কিন্তু, তিনি এই ম্যাচে ব্যর্থ। খাতা খুলতেই পারেনি। প্রথম বলেই রান আউট হন তিনি।

ম্যাঞ্চেস্টারে মারমুখী মেজাজে স্মৃতি। ছবি টুইটারের সৌজন্যে।

অন্যদিকে. অনবদ্য  ম্যাচ-জেতানো ইনিংস খেললেন স্মৃতি। এই প্রতিযোগিতায় এখন তিনিই সর্বাধিক রানসংগ্রহকারী। করে ফেলেছেন ২৮২ রান। তাঁর ইনিংসগুলো এমন ৪৮, ৩৭, অপরাজিত ৫২, অপরাজিত ৪৩ ও ১০২।

রান তাড়ার শুরুতেই দুই উইকেট খুইয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল ওয়েস্টার্ন স্টর্ম। পাওয়ারপ্লে-তে উলটোদিকে দুই উইকেট পড়লেও মানধানা চালাতে থাকেন। শুরুর ছয় ওভারে ওঠে ৪৯। তার মধ্যে স্মৃতিরই ৩৫। তাঁকে আর থামানো যায়নি। অর্ধশতরানে পৌঁছন ৩৪ বলে। শতরানে পৌঁছন ছয় মেরে। জিততে যখন আর মাত্র দুই রান বাকি, তখন আউট হন তিনি। তার আগে স্টেফানি টেলরের (অপরাজিত ৩৩) সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে ১০৫ রান যোগ করেছিলেন তিনি।

এই জয়ের ফলে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্টার্ন স্টর্ম কিয়া সুপার লিগের শীর্ষে উঠে এল।

আরও পড়ুন: টেস্ট জিততে চাই আর ৮৪, একা কুম্ভ সেই কোহালি

আরও পড়ুন: অ্যাডিলেডের সেঞ্চুরিকেই এক নম্বরে রাখছেন বিরাট