অপ্রতিরোধ্য ইটালি ও স্পেন। টানা ছয় ম্যাচ জিতে ইউরো কাপের মূল পর্বে যোগ্যতা অর্জনের পথে আরও একধাপ এগিয়ে গেল বিশ্বফুটবলের অন্যতম শক্তিশালী দুই দেশ। ইউরো কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে ‘জে’ গ্রুপের ম্যাচে ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১-২ রুদ্ধশ্বাস জয় তুলে নিল ইটালি। ‘এফ’ গ্রুপে ঘরের মাঠে স্পেন ৪-০ উড়িয়ে দিল ফারো আইল্যান্ডকে। 

২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের মূল পর্বে যোগ্যতা করতে পারেনি ইটালি। ইউরোর যোগ্যতা অর্জন পর্বে কিন্তু চেনা মেজাজে চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নেরা। ঘরের মাঠে ফিনল্যান্ডকে ২-০ হারিয়েই অভিযান শুরু করেছিলেন লিয়োনার্দো বোনুচ্চিরা। সোমবার রাতে ফিনল্যান্ডের ঘরের মাঠে বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে থাকলেও প্রথমার্ধে গোল করতে ব্যর্থ রবার্তো মানচিনির দল। ৫৯ মিনিটে ইটালিকে এগিয়ে দেন চিরো ইমমোবিলে। জাতীয় দলের জার্সিতে প্রায় দু’বছর পরে গোল পেলেন তিনি। ৭২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্যবধান কমান ফিনল্যান্ডের তেমু পুক্কি। সাত মিনিটের মধ্যেই পেনাল্টি থেকে গোল করে ইটালিকে এগিয়ে দেন জর্জে ফিলহো। এই জয়ের ফলে ৬ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে ‘জে’ গ্রুপের শীর্ষ স্থান দখলে রাখল ইটালি। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ১২ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ফিনল্যান্ড। ম্যাচের পরে উচ্ছ্বসিত ইমমোবিলে বলেছেন, ‘‘জাতীয় দলের হয়ে গোল করতে না পেরে চাপে পড়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু জানতাম, আমার সময়ও এক দিন আসবে।’’ 

ফারো আইল্যান্ডকে হারাতে কোনও সমস্যা হয়নি স্পেনের। ৭০ শতাংশ বল ছিল সের্খিয়ো র‌্যামোসদের দখলে। ১৩ মিনিটে প্রথম গোল করেন রদ্রিগো মাচাদো। তা সত্ত্বেও প্রথমার্ধে গোলের সংখ্যা বাড়েনি। দ্বিতীয়ার্ধে আরও ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন দানি কার্বাহালেরা। ৫০ মিনিটে ফের গোল করেন রদ্রিগো। ৯০ মিনিটে স্পেনের হয়ে তৃতীয় গোল করেন পাকো আলকাসার। তিনি দ্বিতীয় গোল করেন সংযুক্ত সময়ে। ম্যাচের পরে রদ্রিগো বলেছেন, ‘‘ফারো আইল্যান্ড শুরু থেকে রক্ষণ মজবুত করে খেলছিল। তাই প্রথমার্ধে বেশি গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধে সেই সমস্যাটা কাটিয়ে উঠতে পেরেছিলাম।’’

দুরন্ত জয়ের রাতেই র‌্যামোস স্পর্শ করলেন প্রাক্তন সতীর্থ ইকের ক্যাসিয়াসের নজির। জাতীয় দলের হয়ে ১৬৭টি ম্যাচ খেলেছিলেন বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষক। সোমবার র‌্যামোসও স্পেনের জার্সি গায়ে ১৬৭তম ম্যাচে মাঠে নামলেন।

ইউরো কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের অন্য ম্যাচে সোমবার আর্মেনিয়া ৪-২ হারাল বসনিয়া হার্জেগোভিনাকে। গ্রিস ১-১ ড্র করল লিস্টেনস্টাইনের বিরুদ্ধে। ডেনমার্ককে আটকে দিল জর্জিয়া। ফল ০-০। সুইৎজ়ারল্যান্ড ৪-০ চূর্ণ করল জিব্রাল্টারকে। রোমানিয়া ১-০ হারাল মাল্টাকে। সুইডেন ১-১ ড্র করল নরওয়ের সঙ্গে। ক্রোয়েশিয়া ১-১ ড্র করেছে আজ়েরবাইজানের বিরুদ্ধে।