দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দু’ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ২-০তে জিতে নিল শ্রীলঙ্কা। প্রথম টেস্ট ২৭৮ রানে জিতে নেওয়ার পর দ্বিতীয় টেস্টও ১৯৯ রানে জিতে সিরিজ দখলে রাখল শ্রীলঙ্কা। সিরিজ জিতে অবসরের কথা জানিয়ে দিলেন শ্রীলঙ্কা দলের সিনিয়র ক্রিকেটার রঙ্গনা হেরাথ। তিনি বলেন, ‘‘দলের খেলায় আমি খুশি। বিশেষ করে বিশ্বের দু’নম্বর দলের বিরুদ্ধে ম্যাচ ও সিরিজ জয়। আমরা বলও ভাল করেছি। সবাইকেই একদিন থামতে হয় আর সে কারণেই আমি অবসরের সিদ্ধান্ত নিলাম। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে আর একটা সিরিজ রয়েছে। আশা করি সেখানেও ভাল করব।’’

কলম্বোতে দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হয়েছিল ২০ জুলাই থেকে। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা থামে ৩৩৮ এ। হাফ সেঞ্চুরি করেন গুনাথিলকা (৫৭), করুনারত্নে (৬৩) ও ডি সিলভা (৬০)। এর পর আর কেউই বড় রান করতে পারেননি। দনাঞ্জয়া ৪৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। দক্ষিণ আফ্রিকার কেশব মহারাজ একাই নেন ৯ উইকেট। রাবাডা একটি উইকেট নেন। প্রথম ইনিংসে ব্যাট সকরতে নেমে ১২৪ রানেই শেষ হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। ৫০ রানের গণ্ডি পেড়তে পারেননি কেউ। ফাফ দু’প্লেসির ব্যাট থেকে আসে সর্বোচ্চ ৪৮ রান। শ্রীলঙ্কার হয়ে দনাঞ্জয় ৫, পেরেরা ৪ ও হেরাথ একটি উইকেটে নেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭৫/৫এ ইনিংস ঘোষণা করে দেয় শ্রীলঙ্কা। এ বারও তিনটি হাফ সেঞ্চুরি আসে শ্রীলঙ্কার ইনিংসে। গুনাথিলকা (৬১), করুনারত্নে (৮৫) ও ম্যাথুস (৭১) জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেয় শ্রীলঙ্কা। সিলভা ৩২ রান করে অপরাজিত থাকেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেট নেন সেই মহারাজ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১০১ রানের ইনিংস খেলেও দলকে জয়ের কাছে নিয়ে যেতে পারেননি ডে ব্রুয়েন।  বাভুমা করেন ৬৩ রান। ২৯০ রানে শেষ হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস। ১৯৯ রানে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে সিরিজ জয় শ্রীলঙ্কার। শ্রীলঙ্কার হয়ে ৬ টি উইকেট নেন হেরাথ। ম্যাচের ও সিরিজের সেরা হয়েছেন দিমুথ করুনারত্নে।

আরও পড়ুন
ইংল্যান্ডে সিরিজ জিততে পারি, দাবি ইশান্তের