• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

টেস্টের ট্রফি নিয়ে বিলাপ স্টিভের

Steve
আশাবাদী: টেস্ট আকর্ষক হবে বলে মনে করেন স্টিভ। ফাইল চিত্র

তাঁর সময়ে টেস্টের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থাকলে খুবই উপভোগ করতে পারতেন বলে জানালেন স্টিভ ওয়। আইসিসি ওয়েবসাইটে প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক বলেছেন, ‘‘আমি এমন একটা দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলাম, যারা ১৬টা টেস্ট টানা জিতেছিল। এখন সেই সব মুহূর্তগুলোর দিকে ফিরে তাকিয়ে আমার মনে হচ্ছে, সত্যি আমাদের সময়ে যদি টেস্ট চ্যাম্পিয়শিপ থাকত!’’

স্টিভের দুর্দান্ত অস্ট্রেলীয় দলকে বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা হিসেবে মানা হয়। টানা ১৬টা টেস্ট জেতার পরে প্রথম তাঁরা হারেন ইডেনের সেই ঐতিহাসিক ম্যাচে। যেখানে সারা দিন ধরে ব্যাট করে গিয়েছিলেন ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং রাহুল দ্রাবিড়। ফলো-অন করার পরেও অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে রুদ্ধশ্বাস টেস্ট জেতে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ভারত। ঠিক তার আগেই মুম্বইয়ে প্রথম টেস্ট জেতে অস্ট্রেলিয়া। সেটাই ছিল তাদের টানা ১৬তম জয়। 

স্টিভ বলছেন, ‘‘টানা অতগুলো টেস্ট জেতা অসাধারণ এক প্রাপ্তি ছিল। আমি খুব গর্বিত হই সতীর্থদের সেই পারফরম্যান্সের জন্য।’’ সেই সময়ে বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করে তাঁর দল পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপ জিতেছে। কিন্তু কখনও টেস্ট সেরার মুকুট পায়নি। যা এখন চালু করছে আইসিসি। বিরাট কোহালিদের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর বা আজ, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু অ্যাশেজ থেকে গণনা শুরু হয়ে যাবে টেস্টের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের। প্রস্তাব মতো টেস্টের সেরা বাছার জন্য ফাইনালও হবে। স্টিভের মনে হচ্ছে, ‘‘আমাদের সময়েও এ রকম একটা ফাইনাল খেলার সুযোগ থাকলে কী দারুণ হত! আমরাও টেস্ট চ্যাম্পিয়নের ট্রফি হাতে তুলে ধরতে পছন্দ করতাম।’’ 

অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম সেরা অধিনায়কের মনে কোনও সংশয় নেই যে, বিশ্ব ক্রিকেটের জন্য টেস্টের চ্যাম্পিয়নশিপ দারুণ মোড় এনে দিতে চলেছে। ‘‘এত দিন টি-টোয়েন্টি বা পঞ্চাশ ওভারের ওয়ান ডে-তে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন রয়েছে। তা হলে টেস্ট ক্রিকেটের কেন থাকবে না? আমার তো মনে হয় আরও আগেই তা হতে পারত,’’ আইসিসি ওয়েবসাইটে লিখেছেন স্টিভ। সঙ্গে যোগ করছেন, ‘‘আমরা বলি টেস্ট ক্রিকেটই আসল খেলা কিন্তু সেটা প্রমাণ করার জন্য টেস্ট ক্রিকেটকে সেই জায়গাটাও তো দিতে হবে। এত দিনে সেটা হচ্ছে। আমি মুখিয়ে রয়েছি দেখার জন্য। আমি খুব উত্তেজিত, তবে সঙ্গে কিছুটা ঈর্শাও হচ্ছে, যে-হেতু আমাদের সময়ে টেস্টের চ্যাম্পিয়নশিপ পাইনি।’’ বিলাপের সুরেই তিনি বলে ফেলেছেন, ‘‘আমি কখনও টেস্ট সেরার ট্রফিটা হাতে তুলতে পারব না।’’ তাঁর সময়ে স্টিভের অস্ট্রেলিয়াই যে বিশ্বের সেরা টেস্ট এবং ওয়ান ডে দল ছিল, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। ম্যাথু হেডেন, জাস্টিন ল্যাঙ্গার, রিকি পন্টিং, তিনি নিজে, ডামিয়েন মার্টিন, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট— ভয় পাইয়ে দেওয়ার মতো ব্যাটিং বিভাগ। সঙ্গে গ্লেন ম্যাকগ্রা, জেসন গিলেসপির মতো জোরে বোলার এবং শেন ওয়ার্নের মতো স্পিন কিংবদন্তি। সেই সময়ে টেস্টের চ্যাম্পিয়নশিপ থাকলে এমন শক্তিশালী দল নিয়ে স্টিভ ওয় ট্রফি জিততেই পারতেন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন