• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওয়ার্নারদের ১০ কোটি ডলারের টোপ দেওয়া নিয়ে ক্রিকেটবিশ্বে জল্পনা

Advertisement

চল্লিশ বছর আগের ইতিহাস কি ফিরে আসতে চলেছে ক্রিকেটে? কেরি প্যাকারের ওয়ার্ল্ড সিরিজ ক্রিকেট কি আবার নতুন চেহারায় দেখা দেবে? এক ভারতীয় শিল্পপতির হাত ধরে!

বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলীয় মিডিয়ায় প্রকাশিত একটা খবরের পর সেই জল্পনাই চালু হয়ে গিয়েছে ক্রিকেট জগতে। প্রয়াত প্যাকারের দেশেরই এক সংবাদপত্রের প্রথম পাতার শিরোনাম— মাইকেল ক্লার্ক এবং ডেভিড ওয়ার্নারকে বিদ্রোহী ক্রিকেট লিগে ভাঙিয়ে নিতে ১০ কোটি ডলারের টোপ!

দিন কয়েক আগেই পাল্টা আইসিসি গঠন হওয়ার একটা জল্পনা ছড়িয়েছিল। এ বার শোনা যাচ্ছে একটা পাল্টা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের কথা। যেখানে খেলতে পারেন বিদ্রোহী ক্রিকেটাররা। এবং এই দুই পরিকল্পনার পিছনে একটাই নাম— সুভাষ চন্দ্র।

শোনা যাচ্ছে, ওয়ার্নার এবং ক্লার্ক— দু’জনকেই পাঁচ কোটি ডলার করে টোপ দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। চুক্তি হবে দশ বছরের জন্য। মাস্টারপ্ল্যান অনুযায়ী, বিশ্ব ক্রিকেটের সুপারস্টারদের ভাঙিয়ে নেওয়ার জন্য এ রকমই বিশাল অঙ্কের টোপ দেওয়া হবে। তবে আর কে কে এই তালিকায় আছে, তা এখনও জানা যায়নি।

সুভাষ চন্দ্রের ‘এসেল’ গ্রুপ বিভিন্ন দেশে ক্রিকেটীয় কোম্পানি রেজিস্ট্রি করছে বলে আগেই জানা গিয়েছে। যা নিয়ে শঙ্কিত সংশ্লিষ্ট দেশের বোর্ড। এমনকী আইসিসি-র বৈঠকেও এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। শুধু তাই নয়, শোনা যাচ্ছে পুরো ব্যাপারটা খতিয়ে দেখতে আইসিসি নাকি কমিটিও গঠন করা হচ্ছে। 

সুভাষ চন্দ্রের সামনে প্রথম যে সমস্যাটা ছিল, তা হল, সুপারস্টার প্লেয়ার কোথায় পাবেন তিনি? এ বার দেখা যাচ্ছে বিশাল অর্থ দিয়ে সেই সমস্যার সমাধান করতে চান সুভাষ চন্দ্র। অনেকটা তাঁর সেই ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লিগের (আইসিএল) ধাঁচে। অবশ্য পাল্টা একটা অংশ আবার মনে করিয়ে দিতে চায়, কী ভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল আইসিএল এবং এখনও নাকি সেই বিদ্রোহী ক্রিকেট লিগের অনেকে পুরো টাকা পাননি।

তবে আইসিসি বর্তমানে যে ভাবে কাজ চালাচ্ছে, তাতেও খুশি নয় অনেক ক্রিকেট সংস্থা। ক্রিকেট প্লেয়ার্স ইউনিয়নের প্রাক্তন প্রধান টিম মে যেমন বলেছেন, ‘‘আইসিসি-কে নিয়ে একটা অসন্তোষ তো তৈরি হয়েইছে। যে ভাবে আইসিসি কাজ চালাচ্ছে, যে ভাবে আর্থিক ভাগ বাটোয়ারা হচ্ছে বিভিন্ন বোর্ডের মধ্যে, তা অনেককেই খুশি করেনি। এদের অনেকেই মনে করে আরও ভাল ভাবে ক্রিকেটের বিশ্বায়ন সম্ভব। যেখানে অর্থনৈতিক লেনদেন স্বচ্ছ ভাবে হতে পারে।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন