• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দিল্লির বায়ুদূষণ নিয়ে উদ্বিগ্ন সুনীল, গম্ভীরও

Gumbhir & Chhetri
সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসুন সবাই, চান সুনীল গৌতম। পিটিআই, ফাইল চিত্র

Advertisement

রবিবারের ভারত বনাম বাংলাদেশ প্রথম টি-টোয়েন্টি দ্বৈরথে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে দিল্লির বায়ুদূষণ। সেই আতঙ্ক এ বার ছড়িয়ে পড়ল ফুটবল মহলেও। বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে আফগানিস্তান (১৪ নভেম্বর) এবং ওমান (১৯ নভেম্বর) ম্যাচের প্রস্তুতির মধ্যেও রাজধানীর দূষণ নিয়ে সরব ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। উদ্বিগ্ন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন তারকা ও সাংসদ গৌতম গম্ভীরও।

বুধবার দিল্লিতে এক অনুষ্ঠানে উদ্বিগ্ন সুনীল বলেছেন, ‘‘দিল্লিতে বায়দূষণ এতটাই ভয়াবহ আকার নিয়েছে যে ফিট থাকাই সমস্যা।’’

বছর দু’য়েক আগে দূষণের জন্য দিল্লির তৎকালীন ফিরোজ় শা কোটলা স্টেডিয়ামে ভারত বনাম শ্রীলঙ্কা টেস্টে ক্রিকেটারেরা মুখে মাস্ক পরে খেলতে বাধ্য হন। এ বারও পরিস্থিতি বদলায়নি। একিউআই (এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স) অনুযায়ী দীপাবলির দিন সকালে দূষণের মাত্রা ছিল ৪২৩। বিকেলে তা আরও বেড়ে গিয়েছিল। স্বাভাবিকের চেয়ে যা পাঁচ গুণ বেশি। এর ফলে দিল্লি ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে সাধারণ মানুষের শ্বাসকষ্ট বেড়ে গিয়েছে। চোখ জ্বালা করছে। সুনীল বলেছেন, ‘‘দিল্লিতে পা দেওয়ার পর থেকেই আমার চোখ জ্বালা করছে। বিদেশি ফুটবলারেরা মাস্ক পরতে বাধ্য হচ্ছে। এই কারণেই অনেকে দীপাবলির সময়ে দিল্লির বাইরে চলে যান। আমাদের সকলকে একসঙ্গে এই সমস্যার সমাধানের জন্য এগিয়ে আসতে হবে।’’ 

২০১১ সালে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন ভারতীয় দলের সদস্য ছিলেন গম্ভীর। ফাইনালে ১২২ বলে ৯৭ রান করেছিলেন তিনি। কিন্তু এই মুহূর্তে দিল্লির যা পরিস্থিতি তাতে ক্রিকেটের চেয়েও তাঁর কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ দূষণের মোকাবিলা করা। সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গম্ভীর বলেছেন, ‘‘দিল্লিতে ক্রিকেট বা অন্য কোনও ম্যাচ আয়োজনের চেয়ে এই মুহূর্তে দূষণ অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। দিল্লির বাসিন্দারা ক্রিকেটের চেয়ে দূষণের মাত্রা নিয়ে বেশি উদ্বিগ্ন।’’ তিনি যোগ করেছেন, ‘‘সমস্যা শুধু খেলায়াড়দের নয়, সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রেও দূষণ চিন্তার ব্যাপার। এর কাছে ম্যাচ হওয়া বা না-হওয়া অত্যন্ত ছোট ব্যাপার।’’

সুনীলের মতো গম্ভীরও মনে করেন দূষণের মোকাবিলায় সকলকে একসঙ্গে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেছেন, ‘‘দূষণের ফলে ভুগতে হচ্ছে রাজধানীকে। শিশু থেকে বয়স্ক, সকলেই এর শিকার। আমাদের দায়িত্ব বায়ুদূষণ রোধ করা।’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘শুনেছি, আগের চেয়ে দূষণ কিছুটা কমেছে। গত ছ’বছরের মধ্যে দিল্লিতে দীপাবলির দূষণের মাত্রা এ বার তুলনায় কম। এর জন্য কৃতিত্ব দিতে হবে দিল্লির মানুষকে। এই প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।’’ 

দূষণের জন্য ইতিমধ্যেই দিল্লি থেকে ভারত বনাম বাংলাদেশ প্রথম টি-টোয়েন্টি সরানোর দাবি উঠেছে। ভারতীয় বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কেও পরিবেশবিদেরা অনুরোধ করেছেন দিল্লি থেকে ম্যাচ সরানোর। গম্ভীর অবশ্য আশাবাদী ম্যাচটা দিল্লিতেই হওয়া নিয়ে। তিনি বলেছেন, ‘‘আশা করছি, ম্যাচটা হবে। যদিও এই ম্যাচটা নিয়ে আমি একেবারেই আগ্রহী নই।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন