অনিল কুম্বলের কোচের পদে থাকাটা কি বিরাট কোহালিদের কাছে বেশি চাপের হয়ে গিয়েছিল? প্রশ্ন তুলেছেন সুনীল গাওস্কর। অলিম্পিক্সে সোনাজয়ী শুটার অভিনব বিন্দ্রা আবার বলছেন, তাঁর শুটিংয়ের সবচেয়ে বড় শিক্ষককে তিনি পছন্দই করতেন না। তবু কুড়ি বছর কাটিয়েছিলেন তাঁর সঙ্গে।  

কোহালি বনাম কুম্বলে নাটকের শেষ দৃশ্য দেখা গেলেও যেন তার রেশ কাটছে না। সুনীল গাওস্কর যেমন কোহালির যুক্তির ব্যাখ্যা চেয়ে বলেন, ‘‘সকাল সাড়ে ন’টায় প্র্যাকটিসে রিপোর্ট করতে বলাটা কি বেশি চাপের? যদি কেউ একটু বেশিক্ষণ নেট  করতে বলে, আরও পঞ্চাশটা ক্যাচ প্র্যাকটিস করতে বলে বা নেটে আরও কুড়িটা করে বেশি বল করতে বলে, তা হলে কি সেটা কোহালিদের কাছে বেশি চাপের হবে? এর পরে যে কোচ হয়ে আসবেন এটা তাঁর জানা দরকার।’’ প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মনে করেন, মাঠে ক্যাপ্টেনই ‘বস্’ হতে পারেন, কিন্তু মাঠের বাইরে কোচই ‘বস্’। তিনি বলেন, ‘‘বিরাটরা যদি অনিলের কাছে প্র্যাকটিস ছেড়ে শপিংয়ে যাওয়ার অনুমতি আশা করে থাকে, তা হলে অনিল তা দেওয়ার লোক নয়।’’  

এ দিকে অলিম্পিক্স সোনাজয়ী শ্যুটার অভিনব বিন্দ্রা টুইট করেছেন, ‘‘আমার সেরা শিক্ষক ছিলেন কোচ উয়ে। ওকে আমি পছন্দই করতাম না। কিন্তু ওঁর সঙ্গে কুড়িটা বছর কাটিয়েছি। ওঁর কোনও কথাই পছন্দ হত না আমার।’’

গাওস্কর দাবি করেছেন, এ বার কোহালিরও এই ব্যাপারে কিছু বলা উচিত। তা হলেই বিতর্কটা মিটবে বোধহয়।’’