ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রশাসন সংক্রান্ত বকেয়া বিবাদ মেটানোর জন্য সুপ্রিম কোর্ট সিনিয়র আইনজীবী পি এস নরসিংহকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে নিয়োগ করল। বিচারপতি এস এ বোবদে এবং এ এম সাপ্রেকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চ পাশাপাশি ভারতের অন্য সমস্ত আদালতে বিসিসিআই ও রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা সংক্রান্ত মামলা আপাতত স্থগিত রাখার করার কথা বলেছে। যত দিন না নরসিংহ তাঁর রিপোর্ট পেশ করছেন। 

বলা হয়েছে আদালত-বান্ধব নরসিংহ বিসিসিআই সংক্রান্ত ব্যাপারে আদালতকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে সাহায্য করবেন। তিনি সব পক্ষের কথা শুনবেন তার পরে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সকে (সিওএ) সুপারিশ করবেন। তার পরেও যদি কোনও পক্ষ সন্তুষ্ট না হয়, সুপ্রিম কোর্ট সে বিষয়ে হস্তক্ষেপ করবে। নরসিংহকে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, বিভিন্ন রাজ্য সংস্থা বোর্ডের অনুদান পাওয়া নিয়ে যে সমস্যার কথা জানিয়েছে, সেই ব্যাপারে যথাযথ সুপারিশ করতে হবে। 

নরসিংহ আদালতে জানিয়েছেন, বিসিসিআইয়ের ওম্বাডসমান হিসেবে নিযুক্ত অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ডি কে জৈন এবং সিওএ-র তৃতীয় সদস্য হিসেবে ২১ ফেব্রুয়ারি যোগ দেওয়া লেফটেন্যান্ট জেনারেল রবি থোঢ়গে তাঁদের দায়িত্ব নিয়েছেন। শুনানির সময় বেঞ্চ আরও জানিয়েছিল, তাঁর কাজের জন্য মধ্যস্থতাকারীর অর্থ পাওয়া উচিত। তবে নরসিংহ বলে দেন, ‘‘এই কাজের জন্য আমার কোনও পারিশ্রমিক চাই না।’’ এর আগে বিচারপতিরা পরামর্শ দিয়েছিলেন, ওম্বাড‌সমানকে বকেয়া বিষয়ের নিষ্পত্তির সমাধান করতে বলা যেতে পারে। কিন্তু পরে এই দায়িত্ব নরসিংহের হাতেই তুলে দেওয়া হল। 

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

এত দিন এই বিষয়গুলো সরাসরি দেখাশোনা করত সিওএ। রাজ্য  ক্রিকেট সংস্থাগুলি কোনও সমস্যায় পড়লে বিনোদ রাই-দেরই দ্বারস্থ হত। যার ফলে তাঁদের চাপও ক্রমশ বাড়ছিল। এ বার নরসিংহ এই দায়িত্ব পাওয়ায় চাপ কিছুটা হলেও কমবে।