বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ আদালত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড মামলার রায় হয়তো দিতে পারে আজ বৃহস্পতিবারই। ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনের খোলনলচে পাল্টে ফেলার জন্য আদালত নিযুক্ত বিচারপতি লোঢা কমিশন যে সুপারিশ করেছে, তার কত অংশ ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনকে মেনে নতুন গঠনতন্ত্র তৈরি করতে হবে, তা এই রায়েই স্পষ্ট হয়ে যেতে পারে।

লোঢা সুপারিশ সব মেনে চলতে হলে ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনে যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে। দেশের ক্রিকেট কর্তাদের বয়সসীমা থেকে শুরু করে, তাদের পদের মেয়াদ ও ক্রিকেটের সার্বিক উন্নয়নের জন্য ঢালাও পরিবর্তনের সুপারিশ করা হয়েছে। সত্তরের বেশি বয়সের কর্তাদের ক্রিকেট প্রশাসনে যেমন থাকা যাবে না, তেমনই তিন বছর অন্তর তিন বছর সাময়িক বিশ্রামে যাওয়ার সুপারিশ করেছে লোঢা কমিশন।

সব মিলিয়ে ন’বছরের বেশি কোনও কর্তা ক্রিকেট প্রশাসনে থাকতে পারবেন না, এমন সুপারিশও করা হয়েছে। একটি রাজ্য থেকে একটির বেশি ভোট বোর্ডের নির্বাচনে যে দেওয়া যাবে না, সেই সুপারিশও করা হয়েছে। কিন্তু শেষ শুনানিতে এই মামলার বিচারপতিরা মন্তব্য করেছিলেন, তিন বছর অন্তর কর্তাদের বিশ্রামে যাওয়ার সুপারিশের প্রয়োজন নাও হতে পারে। যে পর্যবেক্ষণের পরে কর্তারা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিলেন। এক রাজ্য এক ভোটের বিষয়টিও নতুন বিবেচনা করার ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেই পর্যবেক্ষণের প্রভাব চূড়ান্ত রায়ে পড়ে কি না, সেটাই দেখার।

গত ৫ জুলাই আদালত এই রায় দু’সপ্তাহের জন্য স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু চূড়ান্ত রায়দান আরও দু’সপ্তাহেরও বেশি পিছিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার রায়ের পরেই বোঝা যাবে ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনের গতিপথ কোন দিকে যেতে চলেছে।