• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেলবোর্ন মেতে উঠল রজারদের মানবিকতায়

Tennis
তারকা-সমাবেশ: দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে মেলবোর্ন পার্কে প্রদর্শনী ম্যাচে খেললেন সেরিনা, জোকোভিচ, কিরিয়সরা। (ডান দিকে) ফের একসঙ্গে কোর্টে দেখা গেল নাদাল ও ফেডেরারকে। এএফপি, গেটি ইমেজেস

Advertisement

অস্ট্রেলিয়ার ভয়াবহ দাবানলে ক্ষতিগ্রস্থদের সাহায্য করতে হাত মেলালেন টেনিস দুনিয়ার তারকারা। বুধবার মেলবোর্নে একটি চ্যারিটি ম্যাচে দেখা গেল তারকার হাট। কে ছিলেন না সেখানে! টেনিস দুনিয়ার ‘বিগ থ্রি’ অর্থাৎ রজার ফেডেরার, রাফায়েল নাদাল, নোভাক জোকোভিচ তো ছিলেনই। সঙ্গে সেরিনা উইলিয়ামস, নেয়োমি ওসাকা, পেত্রা কিতোভা, ক্যারোলিন ওজনিয়াকি, কোকো গফ-রাও ছিলেন এই বিশেষ ম্যাচে। নতুন প্রজন্মের তারকাদের মধ্যে স্তেফানোস চিচিপাস, নিক কিরিয়স, আলেকজান্ডার জেরেফ, দমিনিক থিমরাও হাজির ছিলেন। রড লেভার এরিনায় এই ম্যাচ দেখতে দর্শকাসন ভরিয়ে তুলেছিলেন টেনিস প্রেমীরা।

ফেডেরার এবং নাদাল, দুই মহাতারকা মিলে দাবানলে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আড়াই লক্ষ অস্ট্রেলীয় ডলার (প্রায় এক কোটি ২১ লক্ষ টাকা) দান করেছেন। অনুষ্ঠানে সেরিনা বলেন, ‘‘গত ২০ বছর ধরে অস্ট্রেলিয়া আমার আর একটা বাড়ি। এই কোর্ট, এই দেশে আমার প্রচুর ভাল ভাল ম্যাচ খেলার স্মৃতি রয়েছে। আমরা সবাই এখানে একত্রিত হয়েছি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে।’’ অস্ট্রেলীয় টেনিস সংস্থা জানিয়েছে এই ম্যাচ থেকে তাঁরা কয়েক লক্ষ ডলার আর্থিক সাহায্যের আশা করছে। যার মধ্যে আবার আছে কোনও খেলোয়াড় এস সার্ভিস করলেই তার জন্য প্রতি সার্ভিসে ১০০ অস্ট্রেলীয় ডলার করে ব্যক্তিগত ভাবে সাহায্য করা। বহু তারকা টেনিস খেলোয়াড় আবার তাঁদের ব্যবহার করা টেনিস সরঞ্জাম অনলাইনে নিলামের জন্য দিয়েছেন। যেখান থেকে সরাসরি ওঠা অর্থ দাবানলের ত্রাণে যাবে। 

সেরিনা এই চ্যারিটি ম্যাচে একটি দলকে নেতৃত্ব দেন। আর একটি দলের নেতৃত্বে ছিলেন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। ম্যাচে কখনও দেখা যায় থিম, কিতোভা সঙ্গে নাদাল  ও জোকোভিচ এক দিকে খেলছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে আছেন ওজনিয়াকির দলের গফ, ওসাকা, জেরেভ এবং চিচিপাস। ফেডেরার-নাদালকেও জুটিতে খেলতে দেখা যায়। যা নিয়ে সব চেয়ে বেশি আগ্রহ ছিল। অস্ট্রেলিয়ার ‘ব্যাড বয়’ নিক কিরিয়সের বিরুদ্ধে ফেডেরার একটি সেট খেলেন। পরে কিরিয়স বলেন, ‘‘আবেগরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলাম। এই চ্যারিটি ম্যাচে আমরা একটু মজা করতে চেয়েছি। আশা করছি এই বিপর্যয় থেকে ঠিক আমরা ঘুরে দাঁড়াতে পারব।’’

 গত কয়েক মাস ধরে চলা এই দাবানলে অস্ট্রেলিয়ায় ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। দু’হাজারেরও বেশি বাড়ি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। দাবানলের জন্য ছড়িয়ে পড়া বিষাক্ত ধোঁয়ার জন্য আগামী সপ্তাহে শুরু হতে চলা অস্ট্রেলীয় ওপেনের প্রস্তুতিতেও প্রভাব পড়েছে। যোগ্যতা অর্জন পর্বের খেলা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। অনেক খেলোয়াড় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বুধবার অবশ্য বৃষ্টির পরে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে। যে জন্য বৃহস্পতিবার হাওয়ার গুণমান আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

অনেক টেনিস খেলোয়াড়ই অস্ট্রেলীয় ওপেন পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছেন। তবে অস্ট্রেলীয় ওপেনের কর্তারা তাতে নারাজ। তা ছাড়া মেলবোর্ন পার্কে তিনটি স্টেডিয়াম রয়েছে যাতে ছাদের ব্যবস্থা রয়েছে। রয়েছে আরও আটটি ইন্ডোর স্টেডিয়ামও। প্রয়োজনে যা ব্যবহার করা হতে পারে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন