বিশাখাপত্তনমে ভারতের কাছে প্রথম টেস্টে ২০৩ রানে হার নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন নন। বরং দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ফ্যাফ ডুপ্লেসি জানিয়ে দিচ্ছেন, প্রথম ইনিংসে তাঁর দলের ব্যাটসম্যানেরা যে পারফর্ম করেছেন, সেটাই তাঁর ঘুরে দাঁড়ানোর আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দিচ্ছে।

আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পুণেতে শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় টেস্ট। তার আগে ডুপ্লেসির উপলব্ধি, ‘‘সে ভাবে বলতে গেলে আমরা ম্যাচটা হেরে গিয়েছিলাম রোহিত শর্মার অনবদ্য ব্যাটিংয়ের কাছেই। বিশেষ করে, দ্বিতীয় ইনিংসে রোহিত যে ইনিংসটা খেলেছিল, সেটাই আমাদের কাজ কঠিন করে দেয়। এ ধরনের উইকেটে চতুরথ ইনিংসে প্রায় চারশো রান তাড়া করার কাজ মোটেও সহজ নয়। উইকেটের চরিত্রও অনেক পাল্টে গিয়েছিল। আমরা তার সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে এগোতে পারিনি।’’ 

তবে সেই হতাশা কাটিয়ে ডুপ্লেসি যোগ করেছেন, ‘‘প্রথম ইনিংসে আমরা যে ভাবে ব্যাটিং করেছি, তার জন্য অধিনায়ক হিসেবে আমি গর্বিত। দলে অনেক নতুন ক্রিকেটার এসেছে। তাদেরও এই সফরে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সুযোগ দিয়ে দলকে তৈরি করে নিতে হবে। আমার বিশ্বাস, পুণেতে দল অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে নামবে।’’ যোগ করেছেন, ‘‘তবে দলের দুই সিনিয়র ক্রিকেটার কুইন্টন ডি কক এবং ডিন এলগার যে ভাবে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করেছে, সেটা আমার কাছে বড় প্রাপ্তি। উপ মহাদেশীয় উইকেটে প্রথম ইনিংসে চারশো রান তোলাটা আমার কাছে অনেক তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে হয়েছে। মনে হচ্ছে, পুণে টেস্টে বড় রান করার ধারা বজায় রাখা যাবে।’’

৩৯৫ রানের টার্গেট কি তাঁর দলের কাছে কঠিন লক্ষ্যমাত্রা হয়ে গিয়েছিল? ডুপ্লেসি বলেছেন, ‘‘আসলে কয়েকটা ভাল ইনিংসের দরকার ছিল। দুর্ভাগ্যবশত তা হয়ে ওঠেনি। তা ছাড়া ফিল্ডিংয়ে আরও একটু ক্ষিপ্রতার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করি। এটা নিয়ে সকলের সঙ্গে কথা বলব। টেস্ট জেতার জন্য ফিল্ডিংয়ের মান বাড়ানোটাও এখন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে গিয়েছে।’’