দিল্লি টেস্ট শুরু হওয়া থেকেই বিতর্কের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে বিসিসিআই। এমনিতেই ধোঁয়াশার কারণে দিল্লির মানুষ এখন নাজেহাল। জীবনযাত্রাতেও পড়েছে তার ছাপ। এরই মধ্যে দিল্লিতে টেস্ট দেওয়ায় বিতর্কের কেন্দ্রে ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা।

ম্যাচের প্রথম দিন থেকেই ধোঁয়াশার কারণে সমস্যার কথা জানিয়ে আসছেন ক্রিকেটাররা। ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে মুখোশ পরেও খেলতে হয়  চান্দিমলদের। এর মধ্যে দ্বিতীয় দিন ধোঁয়াশার কারণে শ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছিল শ্রীলঙ্কার সুরঙ্গ লকমলের। লাঞ্চের পর লকমল শারীরিক ভাবে সমস্যা অনুভব করায় ম্যাচও বন্ধ থাকে ১৭ মিনিট। ১২:৩২ থেকে ১২:৪৯ পর্যন্ত বন্ধ ছিল খেলা।

মাঠে উপস্থিত দুই আম্পায়ারের কাছে সমস্যার কথাও জানান শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক। এরই মধ্যে মাঠ থেকে বার করে নিয়ে যাওয়া হয় লকমলকে। কিছু পরে মাঠে ঢুকে আসেন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রীও। দুই আম্পায়ার নাইজেল লং এবং জোয়েল উইলসনের সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করতেও দেখা যায় শাস্ত্রীকে।

আরও পড়ুন: উড়তেও পারেন ‘গোট’!

আরও পড়ুূন: এই কারণেও বন্ধ হতে পারে খেলা!

আর এই ভিডিও টুইটারে পোস্ট হতেই ট্রোল্ড হতে থাকেন রবি শাস্ত্রী।

একের পর এক টুইট আসতে থাকে শাস্ত্রীকে টিপ্পুনি কেটে।কারও কারও মতে, ডাক্তার কী পরামর্শ দিচ্ছেন, সেই কথাই আম্পায়ারদের মাঠে বলতে এসেছিলেন ভারতীয় দলের কোচ, তো আবার কারও মতে, শাস্ত্রী আসলে শ্রীলঙ্কার প্লেয়ারদের বলতে এসেছিলেন যে, তাঁরা যদি ফিল্ডিং না দেয় তা হলে তিনি বেধড়ক মারবেন।