পিএসজি ৩    •    রিয়াল মাদ্রিদ ০

আতলেতিকো ২    •    জুভেন্তাস ২

নেমার দা সিলভা স্যান্টোস (জুনিয়র) নির্বাসিত। চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপে। নেই এদিনসন কাভানিও। তবু বুধবার রাতে প্যারিসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে প্যারিস সাঁ জারমাঁর (পিএসজি) কাছে ০-৩ হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ। নেপথ্যে অ্যাঙ্খেল দি মারিয়া। প্রাক্তন রিয়াল তারকার জোড়া গোলে অস্বস্তি বাড়ল জ়িনেদিন জ়িদানের। তাঁর চাকরি এখন গভীর সঙ্কটে। নতুন ম্যানেজার নাকি হতে পারেন জোসে মোরিনহো।

পার্ক দ প্রিন্সে ১৪ মিনিটে প্রথম গোল করেন দি মারিয়া। আর্জেন্টাইন তারকার ঠিকানা লেখা প্লেসিংয়ের সামনে কিছুই করার ছিল না রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কুর্তোয়ার। ৩৩ মিনিটে প্রায় কুড়ি গজ দূর থেকে দুরন্ত শটে করেন নিজের দ্বিতীয় গোল। সংযুক্ত সময়ে ৩-০ করেন থোমাস মুইনার। দি মারিয়া কার্যত একাই ঢেকে দিলেন নেমার, এমবাপে, কাভানিদের অভাব। দলবদলের পুরো সময়টা নেমারকে নিয়ে বার্সেলোনার সঙ্গে প্রচুর দড়ি টানাটানি হয়েছে। কিন্তু দি মারিয়ারা যেন এটা বোঝাতে মাঠে নেমেছিলেন যে ব্রাজিলীয় তারকাকে ছাড়াই তাঁদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও ম্যাচ জেতার ক্ষমতা আছে।

২০১৩-’১৪ মরসুমে রিয়ালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের অন্যতম কারিগর ছিলেন দি মারিয়া। কিন্তু অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে ক্লাব ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন। সই করেন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে। পরে যোগ দেন পিএসজি-তে। প্যারিসে তাঁকে বলা হচ্ছে ‘মিস্টার ভিনটেজ’। তাঁর দাপটেই হারের যন্ত্রণা নিয়ে স্পেনে ফিরতে হল রিয়ালকে। ম্যাচের পরে জিদান বলেছেন, ‘‘সব বিভাগেই ওরা ছাপিয়ে গিয়েছে। এ রকম খেললে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতো টুর্নামেন্টে খুব বেশি কিছু করা যাবে না।’’ রিয়াল অবশ্য এ দিন ভাল করে রক্ষণই সাজাতে পারেনি। চোটের কারণে ছিলেন না মার্সেলো। নির্বাসন চলছে সের্খিয়ো র‌্যামোসের। জ়িদান ভরসা করছিলেন গ্যারেথ বেল (ভিএআর-এ তাঁর একটি গোল বাতিল হয়), করিম বেঞ্জেমা, এডেন অ্যাজ়ারদের উপর। কিন্তু হতাশ করলেন তিন জনই। 

এ দিকে, রিয়াল সমর্থকেরা কাঠগড়ায় তুলছেন জ়িদানকেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁরা ফরাসি ম্যানেজারের পদত্যাগ দাবি করলেন। আওয়াজ উঠল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোকে ফেরানোর। অস্বস্তিকর আবহে ভেসে উঠল মোরিনহোর নাম। ‘দ্য স্পেশাল ওয়ান’ নিজেই তা করলেন। তিনি অবশ্য সরাসরি রিয়ালের দায়িত্ব নেওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেননি। পিএসজি-র বিরুদ্ধে হারের পরে স্পেনের একটি সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘‘রিয়ালে কোচিং করানোটা দারুণ আকর্ষণীয়।’’ এর পরেই তাঁকে নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। 

দি মারিয়ার নায়ক হয়ে ওঠার রাতে ব্যর্থ রিয়ালের অার এক প্রাক্তন তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে আতলেতিকো দে মাদ্রিদের বিরুদ্ধে দু’বার এগিয়ে গিয়েও জয় অধরা থাকল জুভেন্তাসে। অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তন ঘটিয়ে ২-২ করে স্পেনের ক্লাব। খুয়ান কুয়াদ্রাদো (৪৮ মিনিট) ও ব্লেস মাতুইদি (৬৫ মিনিট) গোলে এগিয়ে যায় জুভেন্তাস। ৭০ মিনিটে ২-১ করেন আতলেতিকোর স্তেফান সাবিচ। এবং খেলার ঠিক ৯০ মিনিটে অসাধারণ হেডে ২-২ করে দেন হেক্টর হেরেরা। গত মরসুমে এই আতলেতিকোর বিরুদ্ধেই হ্যাটট্রিক করেছিলেন রোনাল্ডো। বুধবার তাঁকে সেই ছন্দে পাওয়া যায়নি। নিশ্চিত জয় হাতছাড়া করে হতাশ জুভেন্তাসের নতুন ম্যানেজার মাউরিসিয়ো সাররি। তাঁর সাফ কথা, ‘‘২-০ এগিয়ে থেকেও পয়েন্ট  নষ্ট করা কোনও ভাল দলের মানায় না। স্কোর দেখে কে বলবে, বেশির ভাগ সময় আমরাই ম্যাচের রাশ ধরে রেখেছি।’’ যোগ করেছেন, ‘‘যে ভাবে আজ দু’টো গোল খেয়েছে দল, তা ক্ষমার অযোগ্য। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা মুখের কথা নয়। আরও অনেক ভাল খেলতে পারলেই একমাত্র সেটা সম্ভব।’’