বিশ্বকাপ অভিযানে নামার আগে অস্ট্রেলিয়ার সামনে এখন ভারত সফর। যে সফর শুরু হচ্ছে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে। থাকছে দু’টি টি-টোয়েন্টি, পাঁচটি ওয়ান ডে ম্যাচ। যে সফর নিয়ে অঙ্ক কষা শুরু করে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটারেরা।

সোমবার ছিল অস্ট্রেলিয়ার বার্ষিক পুরস্কার অনুষ্ঠানের দিন। যেখানে উসমান খোয়াজা বলেন, ‘‘ভারতের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে যে ওয়ান ডে সিরিজটা খেললাম আমরা, সেটা জিততেও পারতাম। একটা খুব ভাল দলের বিরুদ্ধে খেলা ওই সিরিজটা থেকে আমার ব্যক্তিগত প্রাপ্তি কিন্তু কিছু কম নয়। দল হিসেবেও অনেক কিছু শিখেছি।’’ খোয়াজা মনে করেন, তিনি যে ভাবে ওই ওয়ান ডে সিরিজটা খেলেছেন, তাতে তাঁর আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের মন্তব্য, ‘‘আমি হয়তো বড় কোনও ইনিংস খেলতে পারিনি, কিন্তু যে ভাবে ব্যাট করেছি, তাতে আত্মবিশ্বাস বেড়েছে।’’ ভারত সফর নিয়ে কী ভাবছেন? খোয়াজা বলেছেন, ‘‘ব্যাট করার জন্য ভারত ভাল জায়গা। ওখানে রান পাওয়া যায়। ওই সফরের দিকে তাকিয়ে আছি।’’ 

ভারত সফরে মিচেল স্টার্কের অনুপস্থিতিতে বোলিং আক্রমণের দায়িত্ব সামলাতে হবে প্যাট কামিন্সকে। এ দিন অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে অ্যালান বর্ডার পদক জিতে নিলেন এই পেসার। পরে কামিন্স বলেন, ‘‘গত বছরে চোট সমস্যায় আক্রান্ত হয়েছিলাম। তবে নিজের ওপর আস্থা ছিল, ঠিক ফিরে আসব। সেটাই হয়েছে। এখন সব কিছুই ঠিকঠাক হচ্ছে।’’ কামিন্স মনে করেন, বিভিন্ন পরিস্থিতিতে মানিয়ে নিতে পারাটা তাঁর সাফল্যের পিছনে কাজ করেছে। 

অস্ট্রেলিয়ার জন্য তৈরি ভারতও। ইতিমধ্যেই বীরেন্দ্র সহবাগকে ‘বেবিসিটার’ বানিয়ে বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছে সম্প্রচারকারী টিভি চ্যানেল। যেখানে দেখা যাচ্ছে, অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারদের পোশাকে পরপর দরজা খুলে ঘরে ঢুকছে বেশ কয়েকটি শিশু। আর তাদের কোলে বসিয়ে সহবাগ বলছেন, ‘‘দেখো, অস্ট্রেলিয়া থেকে কারা এসেছে!’’