চলে গেলেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার ও জাতীয় নির্বাচক ভি বি চন্দ্রশেখর। চেন্নাইয়ে শুক্রবার তাঁর মৃত্যুর কারণ হিসেবে প্রথমে জানানো হয়েছিল, মারাত্মক হৃগরোগে আক্রান্ত হওয়ার কথা। পরে স্থানীয় এক সিনিয়র পুলিশ কর্তা বলেন, চন্দ্রশেখর আত্মহত্যা করেছেন। বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় তাঁর দেহ পাওয়া যায়। চারদিকে প্রচুর ঋণে জড়িয়ে পড়ায় নাকি তিনি নিজের জীবন শেষ করে দিয়েছেন। মাত্র ছ’দিন পরেই তাঁর আটান্নতম জন্মদিন। চন্দ্রশেখর রেখে গেলেন স্ত্রী ও দুই কন্যাকে।

প্রাক্তন এই জাতীয় ওপেনারের নিজের ক্রিকেট দল (ভিবি কাঁচী বীরনস) ছিল। এ বারও যারা তামিলনাড়ুর প্রিমিয়ার লিগ খেলেছে। চন্দ্রশেখর ভারতের হয়ে সাতটি ওয়ান ডে খেলেন। করেন মোট ৮৮ রান। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে তাঁর রান ৮১ ম্যাচে ৪,৯৯৯। সর্বাধিক ২৩৭ নটআউট। পেশায় ইঞ্জিনিয়ার এই ক্রিকেটার ক্রিকেটমহলে জনপ্রিয় ছিলেন ‘ভিবি’ নামে। তিনি তামিলনাড়ুর রঞ্জিজয়ী দলের সদস্যও ছিলেন (১৯৮৭-’৮৮ মরসুমে)।

চন্দ্রশেখরের মৃত্যুর খবরে ক্রিকেট মহলে নেমে আসে শোকের ছায়া। জাতীয় ও রাজ্য দলে তাঁর বহু দিনের সতীর্থ কৃষ্ণমাচারি শ্রীকান্ত বলেছেন, সতীর্থের এ ভাবে চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না। সঙ্গে জানিয়েছেন, প্রয়াত ক্রিকেটার দারুণ মানুষও ছিলেন। শোক প্রকাশ করে ভারতীয় বোর্ডও। ভেঙে পড়েছেন সুরেশ রায়না। তাঁর প্রতিক্রিয়া, ‘‘সিএসকে (চেন্নাই সুপার কিংস) দল গঠনে উনি সব সময় সক্রিয় থাকতেন। শুরুর দিন থেকেই আমাদের উৎসাহ দিয়েছেন।’’ বেদনাহত হরভজন সিংহের টুইট, ‘‘খুব খারাপ খবর। এত তাড়াতাড়ি ভিবি চলে যাবেন ভাবতে পারছি না।’’ শোকবার্তা প্রকাশ করা হয়েছে আইপিএলে চন্দ্রশেখরের দল চেন্নাই সুপার কিংসের পক্ষ থেকেও।