• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া কোহালি, রাহানেদের

VK
ফাইল চিত্র।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশে দাঁড়িয়ে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার ডাক দিলেন ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা। যে তালিকায় আছেন বিরাট কোহালি, যোগেশ্বর দত্ত থেকে মহেশ ভূপতিরা।

বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ শেষ হওয়ার পরে কোহালি টুইট করেন, ‘‘করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় সতর্ক থাকুন, হুঁশিয়ার থাকুন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজি নিরাপত্তার জন্য যা যা পদক্ষেপ করছেন, দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে আমাদের তা মেনে চলা উচিত।’’ এর পরে করোনার চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত থাকা সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে ভারত অধিনায়ক বলেছেন, ‘‘করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় দেশে এবং বিশ্বে যে সব চিকিৎসক-কর্মীরা লড়াই করে যাচ্ছেন, তাঁদের কথা আলাদা করে বলতেই হবে। পরিচ্ছন্নতা বজায় রেখে নিজেদের এবং চারপাশের মানুষজনের দেখভাল করে আমরা ওঁদের পাশে দাঁড়াই।’’

কোহালিদের কোচ রবি শাস্ত্রীও নিজের মনোভাব জানিয়েছেন টুইট করে। তিনি লিখেছেন, ‘‘আসুন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে রবিবার জনতা কার্ফু পালন করি। করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে আমাদের সবাইকে সংযম দেখাতে হবে।’’ কোহালির সতীর্থ অজিঙ্ক রাহানের টুইট, ‘‘দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে কোভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমাদের নিজের নিজের ভূমিকা ঠিকঠাক পালন করতে হবে। আমাদের নিরাপত্তা বজায় রাখতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজি যে সব নির্দেশিকা দিয়েছেন, তা মেনে চলতে হবে।’’ টুইট করেছেন কে এল রাহুল থেকে ঋষভ পন্থ। বক্তব্য একটাই— করোনার বিরুদ্ধে হাতে হাত মিলিয়ে লড়াই করতে হবে।

অলিম্পিক্স পদকজয়ী কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্তের টুইট, ‘‘গোটা বিশ্ব যে করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করছে, তাকে ভারত থেকে নির্মূল করতে সব খেলোয়াড় আপনার সঙ্গে আছে প্রধানমন্ত্রীজি। ২২ মার্চ, জনতা কার্ফুর দিন আমরা ঘরে থেকে বুঝিয়ে দেব, এই অতিমারির বিরুদ্ধে আমরা সবাই একসঙ্গে লড়াই করছি।’’ ভারতীয় টেনিস তারকা মহেশ ভূপতিও প্রায় একই সুরে টুইট করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী বড় পদক্ষেপ করলেন। প্রধানমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়ে জনতা কার্ফুকে সমর্থন করতে হবে আমাদের।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন