• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সিরিজের ছন্দ তৈরি হয়ে যাবে এই জয়ে, বলে দিলেন বিরাট

Cricketer
জুটি: জয়ের পরে মণীশের আলিঙ্গনে শ্রেয়স। ছবি: এএফপি।

Advertisement

নিউজ়িল্যান্ড আর জেটল্যাগ। শুক্রবার অকল্যান্ডে এই দু’টি বাধাকেই হারিয়ে দিয়েছে বিরাট কোহালির ভারত। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ৫ উইকেটে জিতে উঠে ভারত-অধিনায়কের প্রতিক্রিয়া, এই ধরনের জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করার অর্থ একটাই। গোটা দলটার ছন্দ পেয়ে যাওয়া।

ম্যাচের আগের দিন, কোহালি ঠাসা সূচি নিয়ে কিছুটা হলেও বিরক্তি প্রকাশ করেছিলেন। এ-ও বলেছিলেন যে এর পরে হয়তো বিমানবন্দর থেকে সোজা তাঁদের স্টেডিয়ামে চলে যেতে হবে। অবশ্য দলের মধ্যে এই ধরনের কোনও আলোচনা হয়নি। শুক্রবার অকল্যান্ডে জয়ের পরে কোহালি বললেন, ‘‘এখানে পৌঁছনোর দু’দিনের মধ্যে ম্যাচ খেলে এ ভাবে জেতাটা উপভোগই করেছি। এই জয়ে পুরো সিরিজের ছন্দটা যেন পেয়ে গেলাম। সঙ্গে মনে হল স্টেডিয়ামের আশি ভাগ মানুষই আজ আমাদের পাশে ছিল। ২০০-র বেশি রান তাড়া করতে হলে একটু উদ্বুদ্ধ হওয়ার মতো কিছু অবশ্যই দরকার। আর দলের মধ্যে আমরা কখনও জেট ল্যাগ নিয়ে কথা বলিনি। অজুহাতও দিতে চাইনি।’’

ভারত থেকে নিউজ়িল্যান্ডে পৌঁছতে সাড়ে সাত ঘণ্টার মতো সময় লাগে। ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়াকে ওয়ান ডে সিরিজে ২-১ হারিয়ে আসায় আত্মবিশ্বাসীও। কোহালি বলেছেনও সে কথা, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজে সত্যিই ভাল খেলেছি। সেই আত্মবিশ্বাসটা সঙ্গে নিয়েই এখানে এসেছি। এখানকার যা পিচ, তাতে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক হওয়া যায় না। ইনিংসের মাঝামাঝি সময়টায় আমরা আসল খেলা খেলেছি। তা ছাড়া বোলাররাও ওদের ২০৩-এর মধ্যে বেঁধে রেখেছে। এটাও বেশ ভাল ব্যাপার।’’ কোহালি অবশ্য ফিল্ডিং নিয়ে বলেছেন, ‘‘ফিল্ডিংয়ের জায়গাটায় ইচ্ছে করলে উন্নতি করতে পারি। তার জন্য মাঠের মাপের ব্যাপারটা মাথায় রাখতে হবে। আর ফিল্ডারদের কাছে বলও আসছিল ভাল গতিতে। এখানে এগুলো মাথায় রাখতে হবে।’’ 

আরও পড়ুননির্বাচক-প্রধান হওয়ার দাবিদার চৌহানও

ম্যাচের পরে সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন কে এল রাহুল। জানান, উইকেরক্ষকের বাড়তি দায়িত্বটা তিনি উপভোগ করছেন। এ দিন ব্যাটেও তিনি সফল। ৫৬ রান করেন ২৭ বলে। কোহালির সঙ্গে জুটিতে ৯৯। বলেছেন, ‘‘উইকেটরক্ষকের কাজটাও করতে পেরে বেশ ভাল লাগছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে হয়তো এটা নতুন অভিজ্ঞতা। কিন্তু ৩-৪ বছর ধরে আইপিএলে আমি উইকেটরক্ষা করেছি। করেছি প্রথম শ্রেণির দলের হয়েও। এবং একই সঙ্গে ব্যাট হাতে ইনিংস শুরুও করেছি।’’ যোগ করেছেন, ‘‘উইকেটের পিছনে দাঁড়াতে পারলে পিচের চরিত্র সহজে বোঝা যায়। অধিনায়ক আর বোলারদের তা জানানোও দরকার।’’

রাহুল আরও জানান, উইকেরক্ষক হওয়ার সৌজন্যে কী ভাবে তিনি ব্যাটসম্যান হিসেবে উপকৃত হয়েছেন, ‘‘২০ ওভার টানা উইকেটের পিছনে দাঁড়াতে পারলে সহজেই বোঝা যায়, এই পিচে কোন শটটা সব চেয়ে উপযোগী।’’ রাহুল উচ্ছ্বসিত শ্রেয়স আইয়ারদের নিয়েও। বলেন, ‘‘দারুণ ভাবে আমরা খেলাটা শেষ করতে পেরেছি। অনেক সময় দেখেছি, কঠিন সময়ে দলকে জেতানোর মতো ক্রিকেটার পাওয়া যায় না। আজ কিন্তু উইকেটে যাওয়ার পর থেকেই শ্রেয়স, শিবম (দুবে) এবং মণীশ (পাণ্ডে) শুরু থেকেই ব্যাটে বল লাগিয়েছে। যখন আপনি ২০০ রান তাড়া করছেন, তখন ওভারে একটা বাউন্ডারি মারতেই হবে।’’

স্কোরকার্ড
নিউজ়িল্যান্ড  ২০৩-৫ (২০)
ভারত  ২০৪-৪ (১৯)

নিউজ়িল্যান্ড
গাপ্টিল ক রোহিত বো শিবম           ৩০ • ১৯
মুনরো ক চহাল বো শার্দূল               ৫৯ • ৪২
উইলিয়ামসন ক কোহালি বো চহাল ৫১ • ২৬
গ্র্যান্ডহোম ক শিবম বো জাডেজা          ০ • ২
টেলর ন. আ.                                  ৫৪ • ২৭
সেইফার্ট ক শ্রেয়স বো বুমরা                ১ • ২
স্যান্টনার ন. আ.                                  ২ • ২
অতিরিক্ত                                                 ৬
মোট                                            ২০৩-৫ (২০)
পতন: ১-৮০ (গাপ্টিল, ৭.৫), ২-১১৬ (মুনরো, ১১.৫), ৩-১১৭ (গ্র্যান্ডহোম, ১২.২), ৪-১৭৮ (উইলিয়ামসন, ১৬.৬), ৫-১৮১ (সেইফার্ট, ১৭.৫)।
বোলিং: যশপ্রীত বুমরা ৪-০-৩১-১, শার্দূল ঠাকুর ৩-০-৪৪-১, মহম্মদ শামি ৪-০-৫৩-০, যুজবেন্দ্র চহাল ৪-০-৩২-১, শিবম দুবে ৩-০-২৪-১, রবীন্দ্র জাডেজা ২-০-১৮-১।

ভারত
রোহিত ক টেলর বো স্যান্টনার              ৭ • ৬
রাহুল ক সাউদি বো সোধি               ৫৬ • ২৭
কোহালি ক গাপ্টিল বো টিকনার      ৪৫ • ৩২
শ্রেয়স ন. আ.                                 ৫৮ • ২৯
শিবম ক সাউদি বো সোধি                 ১৩ • ৯
মণীশ ন. আ.                                  ১৪ • ১২
অতিরিক্ত                                               ১১
মোট                                            ২০৪-৪ (১৯)
পতন: ১-১৬ (রোহিত, ১.৪), ২-১১৫ (রাহুল, ৯.৬), ৩-১২১ (কোহালি, ১১.১), ৪-১৪২ (শিবম, ১৩.২)।
বোলিং: টিম সাউদি ৪-০-৪৮-০, মিচেল স্যান্টনার ৪-০-৫০-১, হামিশ বেনেট ৪-০-৩৬-০, ব্লেয়ার টিকনার ৩-০-৩৪-১, ইশ সোধি ৪-০-৩৬-২।

ভারত জয়ী ৬ উইকেটে

ম্যাচের সেরা শ্রেয়স আইয়ার

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন