• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওয়েস্ট ইন্ডিজ শিবিরে আদর্শ এখন বিরাট

VK
প্রেরণা: বিরাটকে দেখে শেখার পরামর্শ ক্যারিবিয়ান দলের সহকারী কোচের।

Advertisement

বিরাট কোহালি হলেন ‘মাপকাঠি’। তাঁর মতো পরিশ্রম করতে পারলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটারেরা নিজেদের লক্ষ্য পূরণ করতে পারবেন। মনে করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সহকারী কোচ রোডি এস্টউইক।

রবিবার থেকে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ তিনটি ওয়ান ডে সিরিজ শুরু হচ্ছে। তার আগে শুক্রবার চেন্নাইয়ে সাংবাদিকদের ক্যারিবিয়ান দলের সহকারী কোচ বলেন, শিমরন হেটমায়ায়, নিকোলাস পুরানের মতো তরুণ ক্রিকেটারেরা প্রতিপক্ষ দলের অধিনায়কের থেকে অনেক কিছু শিখতে পারেন। ‘‘হেটমায়ার, পুরান, হোপের মতো ক্রিকেটারদের দিকে দেখলে বোঝা যায় আমাদের ভবিষ্যৎ কতটা উজ্জ্বল। আমাদের দলে এমন তরুণ ব্যাটসম্যানেরা রয়েছে যাঁরা ক্রমশ উন্নতি করে চলেছে। কিন্তু সব চেয়ে বড় ব্যাপার হল কতটা পরিশ্রম করতে পারছে ওরা। সামনেই বিরাট কোহালির মতো উদাহরণ রয়েছে। কোহালির মতো পরিশ্রম করার ক্ষমতা একটা মাপকাঠি।’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘অনেক ক্রিকেটারই কোহালির থেকে শিখতে পারে। যদি শেখে তা হলে আমাদের একটা সুযোগ থাকবে। কঠোর পরিশ্রম ছাড়া সাফল্য পাওয়া যায় না। পরিশ্রম করার ব্যাপারটা হয়তো একঘেয়ে, কিন্তু তা দুরন্ত সাফল্য এনে দিতে পারে। এক বার যদি ওরা এই পদ্ধতিটার মধ্যে চলে আসতে পারে, তা হলেই সাফল্য পাওয়ার সুযোগ থাকবে।’’

চলতি সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সে খুশি ক্যারিবিয়ান সহকারী কোচ। তবে একই সঙ্গে তিনি সতর্কও। তাঁর মতে, ক্রিকেটে ঢিলেমি দেওয়ার কোনও জায়গা নেই। ‘‘চলতি সফরে দলের ছেলেরা দারুণ খেলেছে। এ ব্যাপারে ওদের কিছু বলার নেই। প্রচুর পরিশ্রম করেছে সবাই। তার ফলাফলও পেতে শুরু করেছে। টি-টোয়েন্টিতে হেটমায়ারের খেলা দেখুন, আশা জাগানোর মতো। এ বার আমরা টি-টোয়েন্টি থেকে বড় ফর্ম্যাটে খেলার প্রস্তুতি নিচ্ছি। অনেকে হয়তো ভুলে গিয়েছে, তরুণ বয়েসেও ওর চারটে ওয়ান ডে সেঞ্চুরি রয়েছে। অবশ্যই আরও প্রতিভা রয়েছে। তাই ক্রিকেটে ঢিলেমি দেওয়ার জায়গা নেই,’’ বলেন এস্টউইক। 

আরও পড়ুন: গড়াপেটার অভিযোগে উত্তাল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ

সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজে তাঁরা ১-২ হারলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সহকারী কোচ মনে করেন, টি-টোয়েন্টিতে ভারতের সঙ্গে পার্থক্যটা অনেকটাই মিটিয়ে আনতে পেরেছে দল। এ বার ওয়ান ডে তেও একই ভাবে এগোতে চান তাঁরা। এস্টউইক বলে দেন, ‘‘যে ভাবে আমরা টি-টোয়েন্টিতে খেলেছি তাতে খুশি। ক্যারিবিয়ানে যখন এই দুটো দল তিনটে টি-টোয়েন্টি খেলেছিল তখন পার্থক্যটা অনেক বেশি ছিল। সেই দূরত্বটা কমাতে পেরেছি আমরা। আশা করি পঞ্চাশ ওভারের ম্যাচেও সেটা করতে পারব।’’

ওয়ান ডে সিরিজ দলের স্পিনারদের কাছে কত বড় পরীক্ষা, জানতে চাইলে তিনি বলেছেন, ‘‘দলের তরুণ স্পিনার হেডেন ওয়ালশ জুনিয়র, খ্যারি পিয়ের ও রস্টন চেজের সামনে এই সিরিজে অনেক কিছু শেখার সুযোগ এনে দেবে। যা ২০২৩ বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে এগিয়ে যেতে ওদের সাহায্য করবে।’’

প্রত্যাবর্তন ব্র্যাভোর: ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার ডোয়েন ব্র্যাভো শুক্রবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরে আসার ঘোষণা করলেন। প্রায় এক বছর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে ঝামেলায় সরে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। এখন সে দেশের বোর্ডের প্রশাসনে বদল আসায় তিনি ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। প্রাক্তন টিম ম্যানেজার রিকি স্কেরিট  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্টের পদে আসেন ডেভ ক্যামেরনের জায়গায়। ‘‘বিশ্বজুড়ে আমার ভক্তদের জানাই, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে আসার ঘোষণা করছি আজ। সবাই জানে এই সিদ্ধান্তের নেপথ্যে প্রশাসনিক পর্যায়ে বদল আসাটাই কারণ। এই ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্যই কয়েক দিন হল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফের খেলার কথা মাথায় ঘুরছিল,’’ বলেন ব্র্যাভো। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন