বিরাট কোহালির পছন্দের ভারতীয় একাদশ কী হতে পারে, সে সম্পর্কে ক্রিকেট ভক্তদের ভাল ধারণাই আছে। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে যদি একটা কবাডি দল গড়তে বলা হয়, তা হলে কোহালি কাদের বাছবেন? এই প্রশ্নের জবাব সম্ভবত ভারত অধিনায়ক ছাড়া আর কারও কাছেই ছিল না। শনিবার রাতে প্রো কবাডি লিগে বিশেষ অতিথি হিসেবে এই প্রশ্নেরই জবাব দিয়ে গেলেন ভারত অধিনায়ক।

প্রো-কবাডির তরফে রবিবার একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয় টুইটারে। যেখানে কোহালিকে প্রশ্ন করা হয়, আপনার দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে একটা কবাডি টিম বানাতে বললে কাদের বাছবেন? 

জবাবে কোহালি প্রথমেই বেছে নেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে। কোহালি বলেন, ‘‘কবাডিতে প্রয়োজন শারীরিক শক্তি এবং ক্ষিপ্রতার। তাই ধোনি অবশ্যই দলে আসবে। এর পরে আমি রবীন্দ্র জাডেজাকে দলে রাখব।’’ তিন নম্বর হিসেবে কোহালি যে নামটা করছেন, সেই ক্রিকেটার আবার এখন জাতীয় দলেই নেই। তিনি উমেশ যাদব। কোহালির মন্তব্য, ‘‘উমেশ যাদব কিন্তু খুব শক্তিশালী। ওকে রাখতেই হবে। তার পরে আসবে ঋষভ পন্থ। ঋষভেরও দারুণ শক্তি।’’

ভারতীয় দল গড়ার সময় যেমন তাঁর এক নম্বর অস্ত্রকে ছাড়া মাঠে নামার কথা ভাবতে পারেন না কোহালি, তেমনই কবাডিতেও যশপ্রীত বুমরাকে কোনও ভাবে বাইরে রাখতে চান না ভারত অধিনায়ক। কোহালি বলে দিচ্ছেন, ‘‘বুমরাকেও দলে রাখতে হবে। ও টো-টাচটা খুব ভাল পারবে বলেই মনে হয়।’’ কবাডিতে ‘টো-টাচ’ হল পয়েন্ট তোলার একটি বিশেষ পদ্ধতি। যেখানে বিপক্ষ অর্ধে হানা দেওয়া রেইডার হাত দিয়ে প্রতিপক্ষের কাউকে না ধরে পা দিয়ে তাকে ছুঁয়ে পয়েন্ট তোলার চেষ্টা করে। 

একটু সময় ভেবে শেষ যে নামটি কোহালি করছেন, তিনি হলেন কে এল রাহুল। কিন্তু কেন নিজেকে দলে রাখছেন না ভারত অধিনায়ক? হাসতে হাসতে কোহালির ব্যাখ্যা, ‘‘আমি কোনও ভাবেই কোর্টে নামছি না। এরা সবাই আমার চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী।’’

প্রো-কবাডি লিগে কোন কোন খেলোয়াড়কে তাঁর ভাল লেগেছে? কোহালি দু’জনের নাম করছেন। রাহুল চৌধরী এবং অজয় ঠাকুর। এবং ভাল লাগার জন্য বিশেষ একটা কারণের কথাও বলেছেন তিনি। কবাডির এই দুই তারকা তাঁকে ভারতীয় দলের দুই ক্রিকেটারের কথা মনে করিয়ে দেন। যে দুই ক্রিকেটার হলেন কোহালি নিজে এবং ধোনি। ‘‘ওদের দু’জনের মধ্যে সম্পর্কটা দারুণ। ওরা দু’জন যেন ঠিক আমার আর মাহির কপি,’’ বলেছেন ভারত অধিনায়ক।

শনিবার মুম্বইয়ে কবাডির লড়াই দেখে আজ, সোমবার অন্য এক লড়াইয়ে নামার জন্য ক্যারিবিয়ানে পাড়ি জমাবেন কোহালি। যেখানে তিনটি টি-টোয়েন্টি, তিনটি ওয়ান ডে এবং দু’টি টেস্ট খেলবে ভারত। যাওয়ার আগে মুম্বইয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন ভারত অধিনায়ক। একটা সময় শোনা যাচ্ছিল, কোনও ক্রিকেটার হয়তো সাংবাদিকদের বৈঠক করবেন না। কিন্তু এ দিন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সাংবাদিক বৈঠকের কথা জানিয়ে দিয়েছে। ক্যারিবিয়ানে নামার আগে ফ্লরিডায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম দু’টো টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে নেবে ভারত।