• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিশ্বকাপের বছরে টি-টোয়েন্টির ফলই প্রাসঙ্গিক বিরাটের কাছে

Virat Kohli
উৎসাহ: ড্রেসিংরুম থেকে ব্যাটসম্যানকে তাতানোর চেষ্টায় বিরাট কোহাালি। টুইটার

নিউজ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ ৫-০ জেতার পরে ওয়ান ডে সিরিজে হার। কিন্তু অধিনায়ক বিরাট কোহালির কাছে ৫০ ওভারের সিরিজের থেকেও বেশি প্রাসঙ্গিক টি-টোয়েন্টির ফল। কারণ এই বছরেই বসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর।

শনিবার অকল্যান্ডে ম্যাচের পরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসে কোহালি বলে যান, ‘‘দুটো ভাল ম্যাচ হল। দর্শকরা দারুণ উপভোগ করল। তবে আমি যেটা আগেও বলেছি, সেটা আবারও বলছি। এই বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। তাই এই বছর টি-টোয়েন্টি এবং টেস্টের প্রাসঙ্গিকতা ওয়ান ডে সিরিজের থেকে বেশি।’’ অস্ট্রেলিয়ায় অক্টোবরে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই বছরে ভারতের ক্রীড়াসূচিতে ওয়ান ডে ক্রিকেট বিশেষ জায়গাও পায়নি। মার্চে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ আছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। তার পরে এই বছর আর কোনও ওয়ান ডে ম্যাচ খেলবে না ভারত। 

সিরিজ হারলেও কোহালি মনে করেন, দুটো ম্যাচ থেকে বেশ কিছু প্রাপ্তি হয়েছে তাঁদের। কোহালির কথায়, ‘‘এই ম্যাচে আমরা সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারতাম, কিন্তু পারিনি। প্রথমার্ধেই আমরা ম্যাচটাকে বেরিয়ে যেতে দিয়েছি। তবে সাইনি আর জাডেজা দারুণ মানসিক দৃঢ়তার পরিচয় দিয়েছে। আমরা জানতাম না, সাইনি এত ভাল ব্যাট করতে পারে।’’ 

সাইনি-জাডেজা ব্যাট করার সময় ড্রেসিংরুম থেকে যে কোনও নির্দেশ যায়নি, তা বলছিলেন কোহালি। ‘‘আমরা চেয়েছিলাম, যারা মাঠে আছে তারা পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাট করুক,’’ বলেন তিনি। মঙ্গলবার নিয়মরক্ষার শেষ ম্যাচ। সে ম্যাচে দলে কিছু পরিবর্তন হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। বলেছেন, ‘‘শেষ ম্যাচে আমাদের হারানোর কিছু নেই। দলে অবশ্যই বদল হতে পারে।’’   

নিউজ়িল্যান্ড অধিনায়ক টম লাথাম অবশ্য ৩-০ সিরিজ জয়ের দিকেই নজর দিচ্ছেন। তিনি বলছেন, ‘‘আগের ম্যাচে ব্যাটসম্যানরা দারুণ খেলেছিল। এই ম্যাচে বোলাররা কাজের কাজটা করল। এখান থেকে ৩-০ সিরিজ জিততে পারলে দারুণ হবে।’’

ছ’ফুট আট ইঞ্চির যে পেসার নিউজ়িল্যান্ড ক্রিকেটে সাড়া ফেলেছেন, সেই কাইল জেমিসন প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেই সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার পেয়েছেন। নিউজ়িল্যান্ড যখন আট উইকেটে ১৯৭ রানে ধুঁকছে, তখন রস টেলরের সঙ্গে নবম উইকেটে ৫১ বলে ৭৬ রান যোগ করেন কাইল। বল করতে এসে ৪২ রান দিয়ে দু’উইকেট তুলে নেন এই পেসার। ম্যাচের সেরার পুরস্কার নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘অপার্থিব একটা অনুভূতি হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন