• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আজ ‘বোল্ট’ এমবাপে বনাম উরুগুয়ের রক্ষণ

অনুশীলনে নামলেও আজ অনিশ্চিত কাভানি

Luis Suarez
লক্ষ্য: উরুগুয়ের অনুশীলনে আত্মবিশ্বাসী সুয়ারেস। ছবি: রয়টার্স

পর্তুগাল ম্যাচে জোড়া গোল করে নায়ক। কিন্তু চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল এদিনসন কাভানিকে। কোয়ার্টার ফাইনালে শুক্রবার ফ্রান্সের বিরুদ্ধে তাঁর খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে প্রবল অনিশ্চয়তা। এর মধ্যেই উরুগুয়ে শিবিরে খানিকটা হলেও স্বস্তি ফিরেছে বুধবার কাভানি অনুশীলনে ফেরায়।

অনুশীলনে নামলেও প্যারিস সাঁ জারমাঁ-র স্ট্রাইকার যে ফ্রান্স ম্যাচে খেলবেনই তাও কিন্তু বলা যাচ্ছে না। উরুগুয়ে দলের চিকিৎসক এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, কাভানির পায়ে স্ক্যান করে দেখা গিয়েছে পেশি না ছিঁড়লেও একটা জায়গা অনেকটা ফুলে আছে। নিঝনি নভগরোদে তাঁর খেলার সম্ভাবনা নিয়ে উরুগুয়ে দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘‘আমরা পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছি। তবে কাভানির চোট আছে এটা পরিষ্কার। তাই দলের সঙ্গে নয়, ওকে আলাদা অনুশীলন করানো হয়েছে। আপাতত ওর ফিজিওথেরাপি চলছে।’’

ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ে দেশঁ কিন্তু মনে করেন কাভানি না খেললেও কোনওভাবেই উরুগুয়েকে দুর্বল বলা যাবে না। ফরাসি কোচের বক্তব্য, ‘‘পিএসজি-তে কাভানি একটা বড় নাম। ফ্রান্সে অসম্ভব জনপ্রিয়ও। আমরা সব রকম ভাবেই নিজেদের তৈরি রাখছি। কাভানি খেললে এক রকম। না খেললে আর এক রকম। তবে কাভানি খেললে আমাদের কাজটা আরও কঠিন হয়ে যাবে। বিশ্ব ফুটবলে কাভানি আর সুয়ারেস (লুইস) বিশ্বের অন্যতম সেরা আক্রমণাত্মক জুটি।’’

এ দিকে লুইস সুয়ারেস জানিয়েছেন, কাভানি না খেললে তাঁর জায়গায় কে নামবেন তা ঠিক করার সেরা মানুষ উরুগুয়ের কোচ অস্কার তাবারেস। একাত্তর বছরের এই কোচ এখন খুবই অসুস্থ। তিনি স্নায়ুর অসুখে ভুগছেন। ক্রাচ নিয়ে হাঁটাচলা করেন। তবু তাঁর উপস্থিতিই দলকে বাড়তি শক্তি দেয় বলে মনে করেন বার্সেলোনায় লিয়োনেল মেসির সতীর্থ সুয়ারেস, ‘‘এই যে আমাকে আজ এত পরিণত দেখছেন তার জন্যও তাবারেসের অবদান অনেকটা। আমাকে সব সময় উনি ম্যাচের আগে বলে দেন, কী ভাবে কী করতে হবে। আমার চোখে তাবারেস বিশ্বের সেরা কোচদের একজন। কাভানি না থাকলেও দলটা আমাদের কোচ ঠিক মতোই সাজিয়ে দেবেন। তাই এটা নিয়ে আমরা ভাবছিই না।’’

আরও পড়ুন: হ্যারি কেনের আলোয় কাপ জয়ের স্বপ্ন ইংল্যান্ডের

তাবারেস নিজে বলেছেন, ‘‘আমাকে দেখলেই যে কেউ বলে দেবে বুড়ো হয়ে গিয়েছি। হয়তো চলে যাওয়ার সময়ও হয়েছে। রাশিয়াতেও ফেডারেশন আমার উপর ভরসা রেখেছে ভাবলে নিজেই অবাক হয়ে যাই। তবে অভিজ্ঞতারও একটা দাম আছে। আর আপনি যত অভিজ্ঞ হবেন তত মাথা ঠান্ডা রেখে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।’’ তারেসের এই মাথা ঠান্ডা রাখা নিয়েও কথা বলেছেন সুয়ারেস, ‘‘উনি একেবারে নিঃশব্দে মাথা ঠান্ডা রেখে এমন এক একটা সিদ্ধান্ত নেন যা দেখে আমরা নিজেরাই অবাক হয়ে যাই। এই বিশ্বকাপেও সেটা প্রতি মুহূর্তে বুঝছি। তাই ফ্রান্সের বিরুদ্ধেও কোচের নির্দেশ আমাদের কাছে বিরাট প্রাপ্তি হয়ে উঠবে বলেই আমার বিশ্বাস।’’

ফ্রান্সের বিরুদ্ধে উরুগুয়ের পারফম্যান্স কিন্তু চিরকালই ভাল। হালফিলে ফরাসিরা তাদের হারাতেও পারেনি। যা নিয়ে দেশঁর কথা, ‘‘ইতিহাস নিয়ে ভাবছি না। ভাবছি ওদের শক্তির কথা। ভাল করেই জানি, ওদের হারানো খুব কঠিন। আমরা শুধু চেষ্টাই করতে পারি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন