• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাশিয়াকে জবাব দিতে তৈরি আমরা: সুবাসিচ

Danijel Subašić
আত্মবিশ্বাসী: আরও এগোবে ক্রোয়েশিয়া, আশায় সুবাসিচ।

ফুটবল পণ্ডিতেরা মনে করছেন, বিশ্বকাপ কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে রাশিয়া তার নিজস্ব ক্ষমতাকে ছাপিয়ে নিজেদের উজাড় করে দেবে। এবং নিজেদের ছাপিয়ে যাওয়ার শক্তিটা তারা পাবে দেশের হাজার হাজার মানুষের সমর্থনে। যদিও জ্লাটকো দালিচের ক্রোয়েশিয়ার গোলরক্ষক দানিয়েল সুবাসিচ দাবি করছেন, রুশ আগ্রাসনের চ্যালেঞ্জ সামলানোর জন্য তাঁরা তৈরি আছেন। শুধু তাই নয়, কয়েক ধাপ এগিয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‘এই রাশিয়ার জবাব আমাদের কিন্তু জানা আছে।’’

গ্রুপ ডি-তে নিজেদের সব ক’টি খেলা জেতার পরে ক্রোয়েশিয়া শেষ ষোলোর বাধা টপকায় ডেনমার্ককে টাইব্রেকারে হারিয়ে। সোচিতে আগামী শনিবার তাদের সামনে আয়োজক দেশ রাশিয়া। রুশরাও কিন্তু স্পেনের মতো মহাশক্তিকে হারিয়ে শেষ আটে এসেছে টাইব্রেকারে জিতে। তাই কোয়ার্টার ফাইনালে এই দু’দেশের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা। ডেনমার্কের বিরুদ্ধে অসাধারণ গোলরক্ষা করে নায়ক হয়ে ওঠা সুবাসিচ এক দোভাষীর সাহায্য নিয়ে বলেছেন, ‘‘ওরা নিজেদের মাঠে খেলবে। প্রচুর সমর্থনও থাকবে রাশিয়ার সঙ্গে। এমনিতে দলটাও বেশ ভাল। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে এত নীচে কেন ছিল আমি বুঝতেই পারি না। তবে শনিবার আমরাও যে কোনও পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকব।’’

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে টাইব্রেকারে সুবাসিচ তিনটি শট আটকে দেন। বিশ্বকাপে এই কৃতিত্ব তাঁর আগে একজনেরই ছিল। ২০০৬ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের তিনটি শট আটকে দিয়েছিলেন পর্তুগালের গোলরক্ষক রিকার্ডো। সন্দেহ নেই, বিপক্ষ গোলপোস্টের নীচে সুবাসিচের উপস্থিতি রাশিয়াকে উদ্বেগে রাখবে। সেটা রাশিয়ার স্ট্রাইকার আর্তেম জিউবাও স্বীকার করেছেন। স্পেনের বিরুদ্ধে এই জিউবাই কিন্তু রাশিয়ার একমাত্র স্ট্রাইকারের ভূমিকায় ছিলেন। বাকি ন’জনই স্পেনের আক্রমণ সামলানোর কাজটা করে গিয়েছেন সমানে। ফলে পুরো ম্যাচে আন্দ্রে ইনিয়েস্তারা গোল করার মতো মাত্র একটা সুযোগ পেয়েছিলেন। রাশিয়ার কোচ ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে এই একই রণনীতি নাও নিতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। এই বিশ্বকাপের নিরিখে স্পেনের চেয়ে অনেক বেশি আক্রমণাত্মক দেখিয়েছে ক্রোয়েশিয়াকে। হতে পারে ক্রোয়েশিয়াকে পাল্টা আক্রমণে জবাব দেওয়ার চেষ্টা করবে রাশিয়া। যা নিয়ে সুবাসিচের মন্তব্য, ‘‘ওরা তো নিজেদের মাঠে খেলবে। আশা করি এ বার অন্তত বেশি করে আক্রমণে আসবে। আশা করি, স্পেন ম্যাচের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে আমাদের বিরুদ্ধে অন্তত খেলবে না। তবে ওদের রণনীতি কী আমার তো জানার কথা নয়। আমি তো ওদের কোচ নই। কিন্তু আবার বলছি, রাশিয়া ভাল দল। ব্যক্তিগত নৈপুণ্যও রয়েছে ওদের মধ্যে। কিন্তু ওরা যাই করুক রাশিয়ার জন্য জবাব আমাদের জানা আছে।’’

আরও পড়ুন:  দেশঁর কাছে তিনটি ম্যাচই এখন ফাইনালের মতো

সুবাসিচ এখন খেলেন ফ্রান্সের মোনাকো ক্লাবে। আগে খেলতেন নিজের দেশে এনকে জাদার ক্লাবে। এই ক্লাবে তাঁর সঙ্গে খেলতেন হাভয় কাসতিচ। দু’জনে খুবই বন্ধু ছিলেন। মাত্র ২৪ বছর বয়সে কাসতিচের খেলার মাঠেই এক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন