ঘরের মাঠে ১৯৬৬ সালে বিশ্বকাপ জয়ের পরে গত বাহান্ন বছরে এই ট্রফি আর ঘরে তুলতে পারেনি ইংল্যান্ডের সিনিয়র দল। গত বছর, অনূর্ধ্ব-২০ এবং অনূর্ধ্ব-১৭, দু’টো বিশ্বকাপ ঘরে ঢুকেছে  ইংল্যান্ডের। 

সোমবার তিউনিশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে ইংল্যান্ড। গত ৬৮ বছরে বিশ্বকাপে তাদের প্রথম ম্যাচে মাত্র পাঁচ বার জিতে ফিরেছে তারা। এ বার রাশিয়ায় বিশ্বকাপ অভিযান শুরুর আগে ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেন বলছেন, ‘‘বিশ্বকাপে দেশের সম্মান বাড়ানোই আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য। দু’বছর আগে ইউরো কাপে ফল ভাল হয়নি। বিশ্বকাপ জিততে গেলে নিজেদের সেরাটা দিতে হবে। আমরা সেটাই দেওয়ার চেষ্টা করছি।’’

হ্যারি কেন সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘যে কোনও টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। যদি ম্যাচ জিতে তিন পয়েন্ট আসে, তা হলে তা দলের পক্ষে খুব ভাল ব্যাপার। তবে তা না এলেও ভেঙে পড়ার কিছু নেই। তিউনিশিয়া বেশ শক্তিশালী দল। ওরা অঘটন ঘটাতেই চাইবে। আমরা সতর্ক রয়েছি।’’

প্রথম ম্যাচের আগে দলকে শারীরিক ও মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখতে নানা প্রচেষ্টা জারি ইংল্যান্ড শিবিরে। কড়া অনুশীলনের বদলে তাই হ্যারি কেন, রাহিম স্টার্লিংরা তিউনিশিয়া ম্যাচের প্রস্তুতি সারলেন কবাডি খেলে। ইংল্যান্ড শিবিরে এর আগেই দেখা গিয়েছে ভারতের এই খেলার অনুপ্রবেশ। এ দিনও সেই কবাডি খেলেই নিজেদের চাঙ্গা রাখলেন রাহিম স্টার্লিংরা।

এ ছাড়াও অনুশীলনের মাঝে পেশির চোট যাতে কমানো যায়, তার জন্য বিশেষ ধরনের প্যান্ট ব্যবহার করতেও দেখা গিয়েছে ইংল্যান্ড ফুটবলারদের। বিশ্রামের সময় এই প্যান্ট পড়া থাকলে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় থাকে পায়ের পেশি। এতে পেশিতে টান ধরে না। টিম-মিটিং, হাল্কা অনুশীলনের সময় ও ম্যাচের বিরতিতে এই ‘হট প্যান্ট’ পরা বাধ্যতামূলক। ইংল্যান্ড দলের চিকিৎসক রবিন চক্রবর্তী জানিয়েছেন, রাশিয়ার তাপমাত্রায় এই প্যান্ট পরা বাধ্যতামূলক।

যে প্রসঙ্গে ইংল্যান্ডের ফুটবলার জেসে লিনগার্ড বলছেন, ‘‘কী ভাবে ম্যাচের আগে চিন্তামুক্ত থেকে মনকে একাগ্র রাখতে হয়, তা শিখিয়েছেন কোচ। আফ্রিকার দলগুলো বিশ্বকাপে অতীতে অনেক অঘটন ঘটিয়েছে। কিন্তু আমরা সে সব কথা মাথায় রাখছি না। গ্রুপের প্রতিটি প্রতিপক্ষ সম্পর্কেই ‘হোম-ওয়ার্ক’ করেছি আমরা।’’

রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত ভলগোগ্রাদে অনুষ্ঠিত হতে চলা এই ম্যাচ নিয়ে ইতিমধ্যেই কড়া নিরাপত্তা মোতায়েন করা হয়েছে। দু’দলের হোটেলেই খানাতল্লাশি ছাড়া মাছিও গলতে পারবে না। নেপথ্য কারণটা অবশ্য আইসিস। ইংল্যান্ডের সংবাদমাধ্যমের দাবি, রাশিয়ার এই শহর নাকি জঙ্গিদের নিশানায় রয়েছে গত কয়েক বছর ধরেই। অতীতেও জঙ্গি হানার ঘটনা ঘটেছে এখানে।

তবে ইংল্যান্ড কোচ সাউথগেট এই সব বিষয় নিয়ে ভাবতে নারাজ। বরং তিনি দলের মধ্যে যাতে কোনও চোরা টেনশন থাবা না বসায় তা দূর করতে সচেষ্ট। তাই বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামার ২৪ ঘণ্টা আগে প্রথম দল ঘোষণা করে দিয়েছেন। আর তাতেই জানা গিয়েছে প্রথম দলে স্টপারে হ্যারি ম্যাগোয়ার, লেফ্ট ব্যাকে অ্যাশলে ইয়ং এবং মাঝমাঠে জর্ডান হেন্ডারসন-রা থাকছেন। যে প্রসঙ্গে সাউথগেট বলছেন, ‘‘ছেলেদের টিম জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। যাতে কোনও চাপের পরিবেশ তৈরি না হয় প্রথম ম্যাচের আগে।’’ ইংল্যান্ড কোচ সঙ্গে দলের অধিনায়ক সম্পর্কে যোগ করেছেন, ‘‘দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছে হ্যারি। সঙ্গে গোলটাও করতে ভুলছে না ও।’’ ইংল্যান্ডের হয়ে ২৪ ম্যাচে ১৩ গোল করেছেন হ্যারি। তাঁর গোল করে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার দক্ষতা প্রসঙ্গে কোচের স্তুতি শুনে বলছেন, ‘‘স্ট্রাইকাররা একটু-আধটু স্বার্থপর হয়। কিন্তু গোল করতে গিয়ে কোনও সতীর্থ অরক্ষিত জায়গায় রয়েছে, তা দেখলেই নিজের কথা ভাবি না। পাসটা তাকে বাড়াই। কারণ, ফুটবলে গোলটাই আসল ব্যাপার। তিউনিশিয়ার বিরুদ্ধেও সেটাই করব।’’

তিউনিশিয়া কোচ নেবিল মালৌল অবশ্য ইংল্যান্ডকে নিয়ে ভীত নন। বলছেন, ‘‘ছেলেরা সবাই ছন্দে রয়েছে। জানি ইংল্যান্ড ছন্দে রয়েছে। দলটাও বেশ শক্তিশালী। তবে আমরা ভয় পাচ্ছি না ওদের।’’  সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘এই গ্রুপের সেরা দল ইংল্যান্ড নয়। কড়া প্রতিপক্ষ বেলজিয়াম। কাজেই গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় হয়ে কারা দ্বিতীয় পর্বে যাবে, তার জন্যই লড়াই তিউনিশিয়া এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে।