রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড। শনিবার সামারা এরিনায় দিনের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে সুইডেনকে ২-০ হারাল তারা।

প্রথমার্ধে ৩০ মিনিটে অ্যাশলে ইয়ংয়ের কর্নার থেকে দুরন্ত হেডে ইংল্যান্ডকে এগিয়ে দিয়েছিলেন হ্যারি ম্যাগুয়ের। ব্যবধান বাড়ানোর অনেক সুযোগ পেয়েছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু, ক্রমাগত সুইডেন বক্সে হানা দিয়েও প্রথমার্ধে কাজের কাজ করতে পারেননি রহিম স্টার্লিংরা। দ্বিতীয়ার্ধে ৫৯ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করল ইংল্যান্ড। লিনগার্ডের লব থেকে এবারও হেডেই এল গোল। করলেন ডেলে আলি।

এর আগে বিশ্বকাপে দু’বার মুখোমুখি হয়েছিল ইংল্যান্ড ও সুইডেন। দু’বারই ড্র হয়েছিল। এবার দাপটে জিতল ইংল্যান্ড।

আরও পড়ুন: কেন হারল ব্রাজিল, পাঁচ প্রধান কারণ

২০০৬ সালের পর এবারই প্রথম বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল তারা। এক যুগ আগে সেবার বিদায় নিতে হয়েছিল শেষ আটেই।

আরও পড়ুন: ফুটবল কেন ৯০ মিনিটের হয় জানেন?

এবার কিন্তু সেমিফাইনালে ওঠা গ্যারেথ সাউথগেটের দলকে অনেক গোছানো দেখাচ্ছে। আক্রমণের সঙ্গে মাঝমাঠের যোগাযোগ দুর্দান্ত। রক্ষণও জমাট। বল উড়িয়ে দেওয়ার ফুটবল খেলছেন না হ্যারি কেনরা। বরং বল দখলে রেখে আক্রমণে উঠছে তারা। ফাইনাল থার্ডেও দেখাচ্ছে অনেক তীক্ষ্ণ। ছয় গোল করা হ্যারি ছাড়াও রয়েছে গোল করার লোক। যা চাপ কমাচ্ছে।

গোলরক্ষক জর্ডান পিকফোর্ড কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে টাইব্রেকারে রক্ষাকর্তা হয়ে উঠেছিলেন। সুইডেনের বিরুদ্ধেও বার কয়েক রক্ষা করলেন। সার্বিক ভাবে, এই ইংল্যান্ড দল কাপ জেতার বড় দাবিদার হয়ে উঠছে।