মেক্সিকোয় শ্যুটিং বিশ্বকাপে দ্বিতীয় সোনা পেল ভারত। দশ মিটার এয়ার পিস্তল বিভাগে চ্যাম্পিয়ন  ভারতের মানু ভাকের। ২০১৮ যুব অলিম্পিক্সে ইতিমধ্যেই জায়গা করে নিয়েছেন ভারতের এই ১৬ বছর বয়সি শ্যুটার। তার সুবাদেই পদকের তালিকায় এখন শীর্ষে রয়েছে ভারত। যার মধ্যে দু’টি সোনা ও তিনটি ব্রোঞ্জ।

দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আলেজান্দ্রা জাভালা-কে হারিয়েছে মানু। ২৪টি শটের ম্যাচে মানুর স্কোর ২৩৭.৫। অন্য দিকে জাভালার সংগ্রহ ২৩৭.১ পয়েন্ট। শেষ শটে মানুকে জাভালাকে হারাতে গেলে ১.৪ পয়েন্টের পার্থক্য মেটাতে হতো। প্রবল চাপের মধ্যেই নিজের লক্ষ্য থেকে সরেনি মানু। শেষ শটে মানুর পয়েন্ট দাঁড়ায় ১০.৬। জাভালা পান ৮.৮।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে মানু বলেছে, ‘‘এ রকম একটা ফল করতে পারব আশা করিনি। বিশ্বকাপে প্রথম বার খেলতে নেমেই পদক পাব ভাবিনি। এখানেই থামনে চলবে না, আসন্ন টুর্নামেন্টগুলোয় আরও ভাল পারফর্ম করতে হবে।’’

মানুর আগে পুরুষদের দশ মিটার এয়ার রাইফেল বিভাগে ভারতকে বিশ্বরেকর্ড গড়ে সোনা এনে দিয়েছেন শাহজার রিজভি। এ ছাড়া ভারতের হয়ে ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছেন জিতু রাই, মেহুলি ঘোষ ও রবি কুমার। ১০ মিটার এয়ার রাইফেল ইভেন্টে ব্রোঞ্জ পান রবি। এটি তাঁর বিশ্বকাপে প্রথম পদক।  গত বছর বিশ্বকাপ ফাইনালেও উঠেছিলেন তিনি। তবে পদক পাননি।

শ্যুটিং বিশ্বকাপে ভারতের এই দুরন্ত ফলে আপ্লুত জাতীয় রাইফেল সংস্থার সভাপতি রনিন্দ্র সিংহ। তিনি বলেছেন, ‘‘স্বপ্নের মতো বিশ্বকাপে শুরু করেছে ভারতীর শ্যুটাররা। এই ফর্ম ধরে রাখতে পারলে ভারতীয় শ্যুটারদের ভবিষ্যৎ যে উজ্জ্বল সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।’’ সঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘‘মানুর মতো তরুণ ও প্রতিভাবান শ্যুটার যে ভাবে পারফর্ম করেছে তার তুলনা হয় না। বাকি শ্যুটাররাও দুরন্ত পারফর্ম করেছে। আমাদের প্রত্যাশা তাই অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে।’’

সোনা জেতার আগে কোয়ালিফাইং রাউন্ডেও দুরন্ত ফর্ম দেখায় মানু। ৫৭২ পয়েন্ট স্কোর করে সে। যা জুনিয়র কোয়ালিফাইং বিশ্বরেকর্ড।