প্রত্যাশিত ভাবেই শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে দলে জায়গা হল না যুবরাজ সিংহের। যুবরাজের পক্ষে যে দলে ফেরা সম্ভব নয়, সে কথা প্রথম আনন্দবাজারেই লেখা হয়েছিল। 

শ্রীলঙ্কা টিমে জায়গা হল না সুরেশ রায়নারও। বিশ্রাম দেওয়া হল দুই স্পিনার আর. অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাডেজাকে। এমনকী দুই পেসার উমেশ যাদব ও মহম্মদ শামিকেও ওয়ান ডে সিরিজে রাখা হচ্ছে না ঘরের মাঠে আসন্ন লম্বা সিরিজের কথা মাথায় রেখে।

রোহিত শর্মা দলে ফিরছেন। তাঁকে ফেরানো হল সহ-অধিনায়ক হিসেবে। সহ-অধিনায়ক হিসেবে তিনি ফেরায় অজিঙ্ক রাহানের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। ধরে নেওয়া হচ্ছে, রোহিতকে সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া মানে ওয়ান ডে-তে রাহানের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়া।

দলে ফেরানো হয়েছে লোকেশ রাহুল, জসপ্রীত বুমরা, মণীশ পাণ্ডেদেরও। শার্দুল ঠাকুর, যুজবেন্দ্র চহ্বালের মতো নতুন তারকাদের নেওয়া হলেও ছেঁটে ফেলা হল তরুণ কিপার-ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ওয়ান ডে সিরিজের দল থেকে বাদ পড়লেন দীনেশ কার্তিকও। রায়নাও ২০১৫-র অক্টোবরের পর থেকে ভারতের হয়ে কোনও ওয়ান ডে খেলেননি। তবে তাঁকে ভারতের মাটিতে আসন্ন সিরিজগুলোয় দেখে নেওয়া হতে পারে।

মনে করা হচ্ছে, ২০১৯ বিশ্বকাপের কথা ভেবেই যুবরাজদের হয়তো দলে নেওয়া হয়নি। তাঁদের জায়গায় পরখ করে নেওয়া হচ্ছে তরুণ ক্রিকেটারদের। এ বার চাপে পড়ে গেলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। তিনি শ্রীলঙ্কা সিরিজে তেমন ভাল ফর্ম না দেখাতে পারলে কী হয়, সেটাই দেখার।

শ্রীলঙ্কা সিরিজের ওয়ান ডে দল: কোহালি (অধিনায়ক), ধবন, রোহিত (সহ-অধিনায়ক), রাহুল, মণীশ, রাহানে, কেদার, ধোনি, হার্দিক, অক্ষর, কুলদীপ, চহ্বাল, বুমরা, ভুবনেশ্বর, শার্দূল।