‘‘যুবরাজ সিংহ রকস্টার, ম্যাচ উইনার এবং আমার ভাল বন্ধু। ২০০৩ বিশ্বকাপে সেঞ্চুরিয়নে দারুণ ইনিংস খেলেছিল যুবরাজ। ওর খেলায় আভিজাত্য ফুটে উঠত। যুবি পঞ্জাবী এবং আমার ভাষাতেই কথা বলে।’’  

এক সময়ে যুবরাজ ও শোয়েব আখতার বহু স্মরণীয় ক্রিকেট যুদ্ধের জন্ম দিয়েছেন। বন্ধু যুবরাজের ব্যাট-প্যাড তুলে রাখার খবর ছড়িয়ে পড়তেই ওয়াঘার ওপার থেকে বিশেষ ভিডিয়ো বানিয়ে পঞ্জাবতনয়কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ‘রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস’।

গতকাল মুম্বইয়ে সাংবাদিক বৈঠক করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা করেছেন। আইপিএল-এর পৃথিবীতেও আর দেখা যাবে না যুবিকে। তাঁর ব্যাট-প্যাড তুলে রাখার খবর ছড়িয়ে পড়তেই দেশবিদেশ থেকে যুবরাজের জন্য ভেসে আসে অবসর পরবর্তী জীবনের জন্য শুভেচ্ছা। শোয়েব বলেছেন, ‘‘যুবরাজের খেলা ছিল সাবলীল। দেশের হয়ে যুবরাজ নজির গড়েছে। ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পিছনে যুবরাজের অবদান রয়েছে। স্টুয়ার্ট ব্রডকে মারা ছ’টি ছক্কা অবিশ্বাস্য।’’  

কুইজ খেলুন : ২২ গজে শিখর ধওয়ন

আরও পড়ুন: জনপ্রিয় ক্রিকেটার কে? টুইটার দুনিয়া বিভক্ত ধোনি-কোহালিতে

শোয়েবের কাছ থেকে এমন বার্তা পাওয়ার পরে স্থির থাকতে পারেননি যুবি। শোয়েবকে টুইট করে যুবি বলছেন, ‘‘তোমাকে ধন্যবাদ। বিশ্বাস করো, আমাকে বল করার জন্য যখন তুমি দৌড়তে, আমার বেশ ভয়ই লাগত। তোমার মুখোমুখি হওয়ার জন্য আমাকে সাহস অর্জন করতে হত। আমাদের মধ্যে অসংখ্য লড়াই হয়েছিল। সেই মুহূর্তগুলো উপভোগ করি।’’  

অনেক আগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন শোয়েব। এ বার যুবিও সরে গেলেন।