• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উন্নত মানের নির্বাচক আনা দরকার, তোপ যুবির

Yuvi
যুবরাজ সিংহ।

Advertisement

জাতীয় নির্বাচক কমিটির উপর চাপ বাড়িয়ে দিলেন যুবরাজ সিংহ। প্রাক্তন ভারতীয় অলরাউন্ডার এম এস কে প্রসাদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচকমণ্ডলীকে এক হাত নিয়ে বলে দিলেন, উন্নত মানের নির্বাচক অবশ্যই আনা দরকার। যুবরাজ মনে করেন,  ‘‘বর্তমান নির্বাচক কমিটির আধুনিক ক্রিকেট নিয়ে চিন্তাভাবনা যথেষ্ট উন্নত মানের নয়।’’ 

মুম্বইয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে যুবরাজ বলেন, ‘‘আমাদের অবশ্যই ভাল নির্বাচক দরকার। বুঝি, নির্বাচকদের কাজটা মোটেও সহজ নয়। যখনই ১৫ জনকে বেছে নেওয়া হবে, কথা হবে অন্য ১৫ জনকে নিয়ে যারা সুযোগ পেল না। কাজটা কঠিন কিন্তু আধুনিক ক্রিকেটের বিচারে ওদের চিন্তাভাবনাও যথেষ্ট উন্নত মানের নয়।’’ 

সাম্প্রতিককালে জাতীয় নির্বাচকদের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এম এস কে প্রসাদের নেতৃত্বাধীন কমিটিতে খুব বেশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা ক্রিকেটারেরা নেই। স্বয়ং প্রসাদ খেলেছেন সাকুল্যে ৬টি টেস্ট এবং ১৭টি ওয়ান ডে ম্যাচ। এত কম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা ক্রিকেটারকে প্রধান নির্বাচক করা নিয়ে বারে বারেই প্রশ্ন উঠেছে। ২০১১ বিশ্বকাপের ‘প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট’ বলছেন, ‘‘আমি সব সময় ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়ানোয় বিশ্বাসী। কঠিন সময়ে খেলোয়াড়দের সম্পর্কে নেতিবাচক কথা বলাটা মোটেও কাম্য নয়। তাতে সেই ব্যক্তির চরিত্রই প্রকাশ পায়। খারাপ সময়ে সবাই খারাপই বলে।’’ ফের বলেন, ‘‘অবশ্যই আরও ভাল জাতীয় নির্বাচক দরকার।’’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে নানা লিগে খেলে বেড়াচ্ছেন তিনি। আবু ধাবিতে দশ ওভারের লিগেও খেলবেন তিনি। মুম্বই অলরাউন্ডার শিবম দুবেকে অনেকে ‘নতুন যুবি’ বলছেন। এ নিয়ে জিজ্ঞেস করায় তাঁর জবাব, ‘‘ওকে আগে কেরিয়ারটা শুরু করতে দিন। তার পরে তুলনা করবেন। তবে ওর প্রতিভা আছে।’’ ভারতীয় দলের নতুন ব্যাটিং কোচ বিক্রম রাঠৌরকে নিয়েও খুব উৎসাহিত নন যুবরাজ। বলেছেন, ‘‘ব্যাটিংয়ে কোথায় সমস্যা হচ্ছে, সেটা খুঁজে বার করতে হবে। বিক্রম রাঠৌর এখন ব্যাটিং কোচ, জানি না সেটা ও করতে পারবে কি না। ও (রাঠৌর) কখনও টি-টোয়েন্টি খেলেনি। ওকে সময় দিতে হবে। তার পরে না হয় ফলের আশা করা যাবে।’’ 

ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপে অলরাউন্ডার বিজয় শঙ্করকে নিয়ে মেতে উঠেছিল ভারতীয় দল। তা নিয়ে কটাক্ষ ছুড়ে যুবরাজ বলেছেন, ‘‘তোমরা বিজয় শঙ্করকে নিয়ে এসেছিলে। তার পরে সে কোথায় উধাও হয়ে গেল! এক বার খেলাচ্ছ, তার পরে তাকে সরিয়ে দিচ্ছ! এ ভাবে কি খেলোয়াড় তৈরি করা যায়?’’ 

সমালোচনায় বিদ্ধ ঋষভ পন্থের পাশে দাঁড়িয়ে যুবরাজ বলেছেন, ‘‘আমি বলব না ঋষভ বিভ্রান্ত। কিন্তু ও নিশ্চিত নয়, বড় শটের জন্য যাবে নাকি খুচরো রান নিয়ে স্ট্রাইক ঘোরানোয় নজর দেবে। দিল্লিতে বল-প্রতি-রানের হিসাবে এগোচ্ছিল ও। তার পরেই আউট হয়ে গেল। ঋষভ এমন এক জন ব্যাটসম্যান যে, সময় নিয়ে হাত খুলতে পারে। আবার শুরু থেকেও ঝড় তুলতে পারে।’’ যোগ করছেন, ‘‘মাত্র ৮-১০টা ওয়ান ডে খেলেছে ও। আর একটু সময় তো দিতেই হবে। ভাল প্রতিভাদের পাশে দাঁড়াতে হবে। থিতু হওয়ার জন্য ছ’মাস থেকে এক বছর সময় লাগলে সেটা দিতে হবে।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন