নতুন মরসুমেও ছবিটা বদলাল না রিয়াল মাদ্রিদ শিবিরে। ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপে বায়ার্ন মিউনিখ ৩-১ চূর্ণ করল ১৩ বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগজয়ীদের।

প্রাক-মরসুম প্রস্তুতি হিসেবে প্রত্যেক বছরই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এই প্রতিযোগিতায় বিশ্বের সেরা দলগুলি যোগ দেয়। আর্সেনালের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই ১-২ হেরে গিয়েছিলেন থোমাস মুলার, রবার্ট লেয়নডস্কিরা। রবিবার হিউস্টনে দ্বিতীয় ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে দুর্দান্ত ভাবে ঘুরে দাঁড়ালেন তাঁরা। ১৫ মিনিটেই কঁহতা তুলিসোর গোলে এগিয়ে যায় জার্মানির দলটি। রিয়াল সমর্থকেরা আশা করেছিলেন, দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়াবেন এডেন অ্যাজ়ারেরা। কিন্তু ৬৭ মিনিটে ফের বায়ার্নকে এগিয়ে দেন লেয়নডস্কি। দু’মিনিট পরে ৩-০ করেন স্যার্জ নিয়াব্রি। ম্যাচ শেষ হওয়ার ছ’মিনিট আগে রিয়ালের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন সদ্য যোগ দেওয়া ১৮ বছর বয়সি রদ্রিগো গয়েস। 

তবে হারের চেয়েও রিয়াল শিবিরে আলোচনার কেন্দ্রে এই মুহূর্তে গ্যারেথ বেল। রবিবার বায়ার্নের বিরুদ্ধে ওয়েলস তারকাকে দলে না রাখায় জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছিল। ম্যাচের পরে সাংবাদিক বৈঠকেই জ়িনেদিন জ়িদান খোলাখুলি জানিয়ে দিলেন, বেল ক্লাব ছাড়লেই তিনি খুশি হবেন। রিয়াল ম্যানেজার বলেছেন, ‘‘সব চেয়ে ভাল হয়, বেল যদি কালকেই ক্লাব ছেড়ে চলে যায়।’’ এর পরেই তিনি যোগ করেছেন, ‘‘বেলের সঙ্গে আমার কোনও ব্যক্তিগত সংঘাত নেই। ওর বিরুদ্ধেও আমি নই। কিন্তু পরিস্থিতি এমন যে, ক্লাবের মঙ্গলের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। বেলকেও সমস্যাটা বুঝতে হবে।’’ 

টটেনহ্যাম হটস্পার থেকে ২০১৩-তে রেকর্ড অর্থে রিয়ালে সই করেন বেল। চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগা জয়ের ক্ষেত্রেও তাঁর ভূমিকা ছিল। ২০২২ পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে রিয়ালের চুক্তি রয়েছে। কিন্তু বেলকে রাখতে রাজি নন জ়িদান। যা নিয়ে রিয়াল ম্যানেজারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ওয়েলস তারকার এজেন্ট। তিনি বলেছেন, ‘‘ফুটবলারদের সম্মান করতে জানেন না জ়িদান।’’ যদিও এই অভিযোগকে গুরুত্ব না দিয়ে জ়িদান বলেছেন, ‘‘ওর জন্য ক্লাব খোঁজার কাজ চলছে। এই কারণেই বায়ার্নের বিরুদ্ধে দলে রাখা হয়েছিল ওকে।’’