×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

ইশান্তকে গাব্বার বাইরে লাঞ্চ খেয়ে এসে উইকেট নিতে হল

গৌতম ভট্টাচার্য
ব্রিসবেন ২০ ডিসেম্বর ২০১৪ ০২:৪৮
বোলার ইশান্ত।

বোলার ইশান্ত।

ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে এ রকম ঘটনার কোনও নজির আছে কি না সন্দেহ। অন্তত হালফিলে তো নেই যে, প্লেয়ার মাঠে লাঞ্চ না পেয়ে টেস্ট খেলতে খেলতে স্টেডিয়ামের বাইরের সিঁড়িতে বসে খাবার খেয়েছে। আবার তার পর বল করে উইকেট তুলেছে।

শুক্রবারের এই বিরলতম ঘটনা ইশান্ত শর্মাকে কেন্দ্র করে ঘটল। ব্রিসবেনে দু’দিন ধরে ভারতের নিরামিষাশী প্লেয়ারদের খাওয়া নিয়ে খুব সমস্যা হচ্ছে। মাঠে যে ক্যাটারার প্লেয়ারদের খাবার সরবরাহ করে, তারা নিরামিষ আইটেম দিচ্ছেই না। ফলে ইশান্ত বা রায়নার মতো যাঁরা ভেজিটেরিয়ান খাবার খান, তাঁরা বারবার বিরক্তি প্রকাশ করতে থাকেন।

সবচেয়ে সমস্যা ইশান্তের। খাবার না খেলে মাঠে বল করবেন কী করে? আজ তাই স্থানীয় ভারতীয় খাবারের দোকান থেকে নিরামিষ খাবার আনার বিশেষ ব্যবস্থা করেছিল ইন্ডিয়ান টিম। সমস্যা হয় লাঞ্চের সময় সেই খাবার আসতে নিরাপত্তারক্ষীরা আটকে দেন। বলেন, বাইরের খাবার গাব্বার ভেতরে ঢোকার নিয়ম নেই। এটা কিছুতেই ভেতরে যেতে দেব না।

Advertisement

ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের সঙ্গে তখন তীব্র বচসা শুরু হয় নিরাপত্তারক্ষীদের। তাঁরা বলেন, আপনারা পরীক্ষা করে খাবার ঢুকতে দিন। নইলে এরা খেলবে কী করে? সিকিউরিটি ‘না’ করে দেয়। ছুটে আসেন অস্ট্রেলীয় বোর্ডের কর্তারা। উত্তেজিত ভারতীয় ম্যানেজমেন্ট তখন সিদ্ধান্ত নেয়, তারা সংশ্লিষ্ট প্লেয়ারকে বাইরে নিয়ে গিয়ে খাওয়াবে। ইশান্ত আর রায়নাকে নিয়ে বেরিয়ে আসেন টিম ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রী। বলেন, আমরা স্টেডিয়ামের বাইরে বসে খাব।



এর পর নাটকে প্রবেশ করেন আইসিসির দুর্নীতিদমন শাখার লোকেরা। তাঁরা বলেন, এ কী কথা? খেলতে খেলতে এ ভাবে কোনও প্লেয়ার তো মাঠের বাইরে চলে যেতে পারে না। যেখানে পাবলিক আছে। বাইরের লোকের সঙ্গে যেখানে সম্পর্ক স্থাপন হতে পারে। খেলার মধ্যে বেরোবার অনুমতি আমরা দিতে পারি না। শাস্ত্রী তখন বলেন, যা করার করে নিন। আমার খেতে বেরোলাম। আমার প্লেয়ারকে আমি অভুক্ত রেখে মাঠে নামাতে পারি না। তিনি, রায়না এবং ইশান্ত বেরিয়ে গিয়ে স্টেডিয়ামের বাইরের সিঁড়িতে বসে পড়েন।

সেখানে মুহূর্তে মানুষের ভিড় জমে যায়। দুর্নীতিদমন শাখার লোকেরা বলতে থাকেন, এখান থেকে ভিড় সম্পূর্ণ সরাতে হবে। বাইরের এক জন লোকও এঁদের কাছে থাকতে পারবেন না। স্টেডিয়ামের বাইরে থেকে খেয়ে ফেরার পর অস্ট্রেলীয় কর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক হয় ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের। সমাধানসূত্র হিসেবে শনিবার থেকে ভারতীয় রান্না জানে এমন শ্যেফের ব্যবস্থা হয়েছে। তিনি মাঠেই রান্না করবেন। অ্যাডিলেড টেস্টে যে ব্যবস্থা ছিল।

Advertisement