Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আনন্দবাজার এক্সক্লুসিভ

একেই আমি বলি পুরুষমানুষের ইনিংস

গৌতম ভট্টাচার্য
অ্যাডিলেড ১২ ডিসেম্বর ২০১৪ ০৩:৪০

...বিরাট দেখাল কেন ও বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে পড়ে। সবাই বলছে প্রথম বলে মাথায় চোট খাওয়ার কথা। সেটা তো আছেই। মাথায় ওই রকম লাগার পরেও সেঞ্চুরি ভাবাই যায় না! লাঞ্চে যখন ফিরল তখন জিজ্ঞেসও করিনি খুব জোর লেগেছে কি না? শুধু ওকে বলি, হেলমেটটা দেখে নিস। ও বলল, না হেলমেট ঠিক আছে। এর পর যে ইনিংসটা খেলল তার জন্য টেকনিক তো লাগেই, সবচেয়ে বেশি লাগে বুকের পাটা। একেই বলে পুরুষমানুষের মতো ইনিংস। যা টেকনিক তো নিশ্চয়ই তার চেয়েও বেশি হার্ট থেকে আসছে। আটত্রিশ বছর পর শুনলাম কেউ ইন্ডিয়ান ক্যাপ্টেন হয়েই আবির্ভাব ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছে। আমার মনে নেই আগের দুটো সেঞ্চুরি কী ভাবে, কোন পরিস্থিতিতে ঘটেছিল। কিন্তু বিরাটেরটা তো অসামান্য। টানা দু’দিন ফিল্ড করার পর এই রকম চাপের মুখে অস্ট্রেলিয়া চাপ দিচ্ছে, মিডিয়া চাপ দিচ্ছে, দর্শক চিত্‌কার করে যাচ্ছে অবিশ্রান্ত, তার মধ্যে মাথা ঠিক রেখে এই রকম ইনিংস ভাবাই যায় না।

Advertisement



ইংল্যান্ডে যখন বিরাট খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল তখনও আপনার কাগজের ইন্টারভিউতে আমি বার বার বলেছি, ওর রানে ফেরাটা স্রেফ সময়ের ব্যাপার। এই পর্যায়ের ব্যাটসম্যান বেশি দিন রানের বাইরে থাকবে না। পূর্বাভাসটা মিলে যাওয়ার জন্য আমার কোনও কৃতিত্ব নেই। বিরাটের মতো ট্যালেন্ট দেখলে যে কেউ এটা বলতে পারবে। কারা তখন ওর বিরুদ্ধে বলছিল, কেন বলছিল, আমি জানি না। এই বয়সে এই রকম পরিণত ব্যাটিং। ছেলেটা কোথায় গিয়ে থামবে সেটা বরং চিন্তা করা ভাল! ওর আজকের ইনিংসটা আমার দেখা বিদেশের কোণঠাসা পরিবেশে কোনও ভারতীয় ব্যাটসম্যানের খেলা সেরাগুলোর তালিকায় থাকবে। এই সব পরিস্থিতিতে কী দেখে অভ্যস্ত আপনারা? আজই হয় ভারত দ্বিতীয় বার ব্যাট করছে বা অস্ট্রেলিয়া ওপেনাররা টি নাগাদ নেমে পড়েছে। কোহলির নেতৃত্বে আমাদের ব্যাটিং ইউনিট দুটোর কোনওটাই হতে দেয়নি। পূজারা খুব ভাল খেলল। ধবন দারুণ শুরু করেছিল। আমার খুব ভাল লেগেছে মুরলী বিজয়কে। শুনলাম কোন একটা চ্যানেল ওকে খেলার পর জিজ্ঞেস করেছে এমন ব্যাটসম্যান সহায়ক উইকেটে বড় রান না করতে পেরে খারাপ লাগছে কি না? আমি টিভি চ্যানেলে থাকলে এটা জিজ্ঞেস করতাম না। আমার তো মুরলী বিজয়ের ব্যাটিং দারুণ লেগেছে।



একটা কথা আমার মনে হয় আপনাদের সবার মনে রাখা উচিত। আমাদের এই টিমটা বিশ্ব ক্রিকেটে সবচেয়ে কমবয়সি দলগুলোর মধ্যে একটা। একটা স্ট্যাটিসটিক্স আমাকে টিমেরই কে যেন দিল যে আমাদের টিম সব মিলে যখন ১৭০ টেস্ট ম্যাচ খেলেছে সেখানে ওরা খেলেছে ৪৭০। কত তফাত ভাবতে পারেন অভিজ্ঞতায়? তা সত্ত্বেও তো টিমটা কী লড়াই না দিচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ার মাঠে আমায় বলুন তো ক’বার হয়েছে যে ওরা প্রথম ব্যাট করে ৫০০ করে ফেলার পর আমরা ইয়ং টিম নিয়ে এই রকম লড়েছি। কাল ফার্স্ট সেশনটা যদি আমরা পুরো খেলতে পারি আর ওদের স্কোর থেকে ১০০ রান পিছিয়েও আমাদের ইনিংস শেষ হয়, খেলা জমে যাবে। কেউ জানে না তখন কী হবে। খুব ইন্টারেস্টিং হয়ে যাবে পরিস্থিতিটা...

আরও পড়ুন

Advertisement