Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জুন ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অঙ্ক কষে স্কোলারি দেখিয়ে দিলেন, ফাইনালে ব্রাজিল বনাম আর্জেন্তিনা

বিশ্বকাপ ফুটবলের চুরাশি বছরের ইতিহাস যা দেখেনি, যে যুদ্ধকে আজও ধরা হয় স্বপ্নের ফাইনাল, লুই ফিলিপ স্কোলারি সেই ফাইনালের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৭ জুন ২০১৪ ০৩:৩২
Save
Something isn't right! Please refresh.
বাধ্য ছাত্রদের নিয়ে মহাগুরুর ক্লাস।

বাধ্য ছাত্রদের নিয়ে মহাগুরুর ক্লাস।

Popup Close

বিশ্বকাপ ফুটবলের চুরাশি বছরের ইতিহাস যা দেখেনি, যে যুদ্ধকে আজও ধরা হয় স্বপ্নের ফাইনাল, লুই ফিলিপ স্কোলারি সেই ফাইনালের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে দিলেন। স্কোলারির মনে হচ্ছে, ২০১৪ বিশ্বকাপ ফাইনালের একটা টিম হবে নেইমারের ব্রাজিল। অন্যটালিওনেল মেসির আর্জেন্তিনা!

“আমরা বিশ্লেষণ করে দেখেছি বিশ্বকাপ ফাইনালে একদিকে থাকবে ব্রাজিল আর অন্য দিকে আর্জেন্তিনা,” প্রস্তুতি শিবিরে বৃহস্পতিবার বলে দেন স্কোলারি। বিশ্বকাপের গ্রুপ নিয়ে তাঁর কোচিং স্টাফের সঙ্গে জটিল হিসেব-নিকেশের পরই নাকি চূড়ান্ত যুদ্ধে লিওনেল মেসিদের মুখোমুখি পড়ার সম্ভাবনা পাচ্ছেন তিনি। তবে হিসেবটা ঠিক কী রকম সেটা ভাঙেননি বিশ্বজয়ী কোচ। বরং বলে দিয়েছেন, “আশা করছি ফাইনালে এই দুটো দলই উঠবে। তা হলে ফাইনালটা দক্ষিণ আমেরিকান ফাইনাল হয়ে উঠবে। দারুণ সব প্লেয়ার। উঁচু মানের যুদ্ধ হবে।”

হিসেব বলছে ব্রাজিল আর আর্জেন্তিনা গ্রুপ পর্যায়ে শীর্ষে শুরু করলে ফাইনালে মারাকানা স্টেডিয়ামে মেসিদের মুখোমুখি হতে পারেন নেইমাররা। কিন্তু ব্রাজিলের মাঠে শুরু থেকেই গোলাগুলি ছুড়তে পারবেন মেসিরা সেই নিশ্চয়তাই বা কোথায়? স্কোলারি বলেন, “আমি আর্জেন্তিনাকে প্রথম বা দ্বিতীয় রাউন্ডে ছিটকে যেতে দেখতে চাই না। আমি চাই ওরা ফুটবলটা নিজেদের ভঙ্গিতে খেলুক। যে রকম ওরা খেলে আর কী।”

Advertisement

আর তাঁর নিজের টিম? ১৩ জুলাই চূড়ান্ত যুদ্ধে ঝড় তোলার জন্য হলুদ জার্সিকে দেখতে পাওয়া যাবে তো? স্কোলারি তাড়াতাড়ি বলে ওঠেন, “ব্রাজিলকে ফাইনালে তুলতেই হবে আমায়। তারপর ফাইনালে সামনে যে টিমই পড়ুক সেটা বড় কথা নয়। আমাকে নিজের টিমের ফাইনালে ওঠাটা নিশ্চিত করতে হবে।”

স্কোলারির ভবিষ্যদ্বাণী সত্যি হলে ঘরের মাঠে নেইমাররা ফুটবলের বিশ্বযুদ্ধ জেতার দৌড়ে যে এগিয়ে থাকবেন সেটা নিশ্চিত। তা ছাড়া পরিসংখ্যানও নেইমারদের পক্ষে। বিশ্বকাপে চার বার মুখোমুখি হয়ে আর্জেন্তিনা মাত্র এক বারই জয়ের মুখ দেখেছে। ১৯৯০ বিশ্বকাপে। মারাদোনা আর ক্যানিজিয়ার দাপটে সেই ম্যাচে ১-০ জিতেছিল আর্জেন্তিনা। ১৯৭৪ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে ২-১ আর ১৯৮২ বিশ্বকাপেও দ্বিতীয় রাউন্ডে ৩-১ জেতে ব্রাজিল। ১৯৭৮ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইটা শুধু গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।

এ বার আর ড্র নয়, বিপক্ষকে একেবারে শুইয়ে দিতে চান স্কোলারি। তাই টিমের প্রস্তুতি থেকেই খুঁতখুঁতে কোচ। ক’দিন আগেই নেইমারদের প্র্যাকটিসে ফাঁকি দেওয়া নিয়ে তুমুল হইচই করেছিলেন। পানামার কাছে জয়ের পরও খুব একটা খুশি হননি। ফিটনেস থেকে পারফরম্যান্স সবকিছুতেই ১০০ শতাংশ চান সেটা স্কোলারির ইঙ্গিতেই স্পষ্ট। ‘পারফেকশনিস্ট’ কোচের ভবিষ্যদ্বাণী এ বার কতটা ‘পারফেক্ট’ হয়, সেটাই দেখার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement