Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কাসিয়াস শেষ, বলে দিচ্ছেন মারাদোনা

দুঃস্বপ্ন মুছে ফেলার লড়াইয়ে দেল বস্কি

নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে ৫-১ বিপর্যয়। অপেক্ষা করছে আলেক্সিস সাঞ্চেজের চিলি। বিশ্ব জুড়ে প্রশ্ন, স্পেনের আধিপত্য কী শেষ হয়ে আসছে? ঐতিহাসিক বিপর্য

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৭ জুন ২০১৪ ০৩:২৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
বিষণ্ণ সময়ে সাইক্লিস্ট দিয়েগো কোস্তা। ছবি: এএফপি।

বিষণ্ণ সময়ে সাইক্লিস্ট দিয়েগো কোস্তা। ছবি: এএফপি।

Popup Close

নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে ৫-১ বিপর্যয়। অপেক্ষা করছে আলেক্সিস সাঞ্চেজের চিলি। বিশ্ব জুড়ে প্রশ্ন, স্পেনের আধিপত্য কী শেষ হয়ে আসছে?

ঐতিহাসিক বিপর্যয়ের জন্য কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে দলের তারকা গোলকিপার ইকের কাসিয়াসকে। গত দু’দিন বিশেষজ্ঞদের কাটাছেঁড়ার মুখে পড়তে হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের গোলরক্ষককে। স্পেন জুড়ে আবেদন জানোান হয়েছে, এই বুড়ো ঘোড়ার উপরে বাজি না লাগিয়ে গোলের মাঝে দি জিয়াকে আনা উচিত। সমালোচকদের তালিকায় ছিলেন আর্জেন্তিনার কিংবদন্তি ও প্রাক্তন বার্সেলোনা ফুটবলার দিয়েগো মারাদোনাও। যিনি তোপ দাগলেন রিয়াল গোলরক্ষকের বিরুদ্ধে। বলে দিলেন, রিয়াল কোচ থাকাকালীন কাসিয়াসকে দল থেকে ছেঁটে সঠিক কাজ করেছিলেন হোসে মোরিনহো। “কাসিয়াসকে এত খারাপ কোনও দিন খেলতে দেখিনি। ওকে দেখে বুঝতে পারলাম, কেন মোরিনহো ওকে বাদ দিয়েছিল,” বলেন মারাদোনা। দলের ‘চোখের মণিকে’ বাদ দেওয়ায় অবশ্য সমর্থকদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছিল ‘দ্য স্পেশ্যাল ওয়ানকে।’ মোরিনহোই যে ঠিক ছিলেন, সে কথা জানিয়ে মারাদোনা বলছেন, “মোরিনহোকে সমর্থকরা বাজে কথা বলেছিল। কিন্তু এখন দেখছি ও কোনও ভুল করেনি।”

মারাদোনার কটাক্ষের মুখে পড়লেও, কাসিয়াসের পাশে দাঁড়ালেন স্বয়ং দেল বস্কি। ১৮ তারিখ চিলির বিরুদ্ধে লড়াই। তার আগে কোচ বলে দিলেন, “যদি কোনও দল হারে তা হলে সেটা গোটা দলের দোষে। কোনও নির্দিষ্ট একটা ফুটবলারের বিরুদ্ধে খারাপ কিছু বলা অন্যায়।” চিলি ম্যাচের আগে টিমকে চাঙ্গা করতে সাহায্য করছেন কাসিয়াসই, সেই কথা জানালেন দেল বস্কি। আত্মবিশ্বাসী সুরে বলেন, “হারের পরে ফুটবলারদের কিন্তু কাসিয়াসই বোঝাচ্ছিল, মনোবল হারালে চলবে না। শেষ পর্যন্ত লড়তে হবে। তাই আমার চোখে ও কিন্তু আদর্শ অধিনায়ক।”

Advertisement

এখনও এই প্রজন্মের ক্ষমতা আছে ছবি পাল্টানোর। ক্ষমতা আছে মাথা উঁচু করেই দাপট বজায় রাখার। এই কথাই মনে করছেন দলের কোচ। দেল বস্কি বলেন, “চাপ আবার কীসের। এই পরিস্থিতি থেকে বেরনোর সুযোগ আছে। দলে অভিজ্ঞতার অভাব নেই।” গত বারের ফাইনালের ‘রিম্যাচে’ নাস্তানাবুদ হয়ে তাই আগাম পদক্ষেপ নিতে চলেছেন দেল বস্কি। ছাঁটতে চলেছেন দলের দুর্বল অঙ্গদের। স্প্যানিশ কোচ বলেন, “চিলি ম্যাচের জন্য হয়তো নতুন দল নামাতে পারি। তবে কাউকে বাদ দেওয়া মানে তার দিকে আঙুল তুলছি এমন না। কিন্তু দ্রুত সমাধানের জন্য বদল করতে হতে পারে।”

নেদারল্যান্ডস বিপদে ফেলবে, তার আগাম আঁচ পেয়েছিলেন দেল বস্কি। বলেছিলেন, ফান গলের দল থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবলই আশা করেছিলেন। শুধু আশা করেননি, স্পেনের এই অসহায় আত্মসমর্পণ। দেল বস্কি বলেন, “আমি জানতাম নেদারল্যান্ডস ভাল খেলবে। কিন্তু আমরাও খুূব বাজে খেলেছি। বিশেষ করে দ্বিতীয়ার্ধে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement