Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গাওস্কর দায়িত্ব পাওয়ায় খুশি প্রাক্তনরা

ক্রিকেটের প্রতি বিশ্বাস ফেরানোই আসল চ্যালেঞ্জ

আইপিএল সংক্রান্ত ব্যাপারে সুনীল গাওস্করকে ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দেওয়ায় খুশি প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ১৯৭১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডি

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ২৯ মার্চ ২০১৪ ০৪:৫৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

আইপিএল সংক্রান্ত ব্যাপারে সুনীল গাওস্করকে ভারতীয় বোর্ড প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দেওয়ায় খুশি প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

১৯৭১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে যাঁর নেতৃত্বে অভিষেক গাওস্করের, সেই অজিত ওয়াড়েকর বলেছেন, “খুব খুশি হয়েছি শুনে যে গাওস্করের মতো কিংবদন্তিকে বোর্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ক্রিকেটারদের মুখ্য প্রশাসনিক ভূমিকায় আসাটা ভাল খবর। শিবলাল যাদবও যেমন বড় দায়িত্ব পেয়েছে। আরও ভাল লাগছে শুনে যে, টিভি ধারাভাষ্যকার হিসেবে গাওস্করের উপার্জনও কমবে না।”

ওয়াড়েকর মনে করছেন, গাওস্কর এবং শিবলাল যাদবের সামনে সর্বোচ্চ চ্যালেঞ্জ হবে ক্রিকেটের প্রতি ভক্তদের বিশ্বাস ফেরানো। “খেলাটার প্রতি ভক্তদের যে বিশ্বাসটা ছিল, সেটা বড় ধাক্কা খেয়েছে। কোনও ব্যাটসম্যান যদি বোল্ড আউট হয়, তা হলে সবাই বোলারের প্রশংসা না করে হয়তো ব্যাটসম্যানকেই সন্দেহ করবে! সেই বিশ্বাসটা ফেরানোই এখন গাওস্করদের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ,” বলেছেন ওয়াড়েকর।

Advertisement

আর এক প্রাক্তন চাঁদু বোরডে বলেছেন, “সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তটা খুব ভাল। বেটিং আর ফিক্সিংয়ের জন্য আইপিএলের ভাবমূর্তি যে নষ্ট হয়েছে, এক জন ক্রিকেটার দায়িত্বে এলে সেটা মেরামত করা যাবে।” সঙ্গে যোগ করেছেন, “স্ট্রেট ব্যাটে খেলার জন্য গাওস্কর বিখ্যাত। ওর নেতৃত্বে গোটা ব্যাপারটায় একটা স্বচ্ছতা আসবে। ওর নিজস্ব ভাবনাচিন্তা আছে। মনে হয় না গাওস্কর দায়িত্বে থাকাকালীন কেউ দুর্নীতিতে জড়ানোর সাহস পাবে।” শিবলাল যাদব নিয়ে বোরডের বক্তব্য, “আইপিএলের বাইরে বোর্ডের বাকি সব কিছুর দায়িত্ব শিবলালকে দেওয়ায় আমি খুশি। ক্রিকেট প্রশাসনের যথেষ্ট অভিজ্ঞতা ওর আছে।”

প্রাক্তন ভারতীয় উইকেটকিপার কিরণ মোরে বলছেন, “গাওস্কর প্লেয়ার ছিলেন। তাই ক্রিকেটারদের কী কী সমস্যায় পড়তে হয়, সেটা ভালই জানেন। আর আইপিএল পরিচালন পরিষদের সদস্য হিসেবে টুর্নামেন্টের ব্যাপারগুলোও উনি জানেন। গাওস্কর আইসিসি ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন, তাই প্রেসিডেন্টের ভুমিকার সঙ্গে মানিয়ে নিতে ওঁর অসুবিধে হবে না।”

আইপিএলের দুই ফ্র্যাঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালস নিয়ে সন্দেহ দেখা দিলেও সুপ্রিম কোর্ট তাদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। সুতরাং আইপিএল সেভেনে ওই দুই টিমই খেলবে। যা নিয়ে বোরডে বলছেন, “চেন্নাই-রাজস্থানকে নির্বাসিত করা হয়নি দেখে ভাল লাগল। মনে হয় ব্যাপারটা নিয়ে বেশ ভাবনাচিন্তা করে সুপ্রিম কোর্ট সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, দুটো টিমকে নির্বাসিত করলে তাতে ক্রিকেটের ক্ষতি হতে পারে।” তবে ওয়াড়েকর মনে করেন, চেন্নাই বা রাজস্থান কোনও টিমই বেটিং বা গড়াপেটার ছায়া থেকে পুরোপুরি বেরিয়ে আসেনি। “সুপ্রিম কোর্ট আইপিএল নিয়ে কড়া অবস্থান নিয়েছে। দুটো টিম ঘিরে সন্দেহের মেঘ কিন্তু এখনও কাটেনি।”



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement